29.9 C
Toronto
বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪

প্রথম স্ত্রীকে ধর্ষণ, ট্রাম্পের কথিত বায়োপিক নিয়ে বিতর্ক

প্রথম স্ত্রীকে ধর্ষণ, ট্রাম্পের কথিত বায়োপিক নিয়ে বিতর্ক
ছবির দুটি স্থিরচিত্র

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কথিত বায়োপিক হিসেবে নির্মিত হয়েছে ‘দ্য অ্যাপ্রেনটিস’ সিনেমা। এ বায়োপিক ১৯৭০ থেকে ১৯৮০ সাল পর্যন্ত অর্থাৎ উচ্চাভিলাষী তরুণ ট্রাম্পকে দেখানো হয়েছে। গত ২০ মে কান চলচ্চিত্র উৎসে প্রিমিয়ার হয় সিনেমাটির। এরপর নয়া বিতর্কের মুখে পড়েছেন ট্রাম্প।

আলি আব্বাসির পরিচালনায় তৈরি ছবিটি গত ২০ মে দেখানো হয় কানে। এই সিনেমায় ট্রাম্পের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন সেবাস্টিয়ান স্ট্যান। আর এই সিনেমায় ট্রাম্পের প্রথম স্ত্রী ইভানার চরিত্রে অভিনয় করলেন বুলগারিয়ান অভিনেত্রী মারিয়া বাকালোভা। ট্রাম্পের তিন সন্তান ডোনাল্ড জুনিয়র, ইভাঙ্কা ও এরিকের মা ইভানা।

- Advertisement -

সিনেমায় দেখানো হয় প্রথম স্ত্রীকে ধর্ষণ করছেন ট্রাম্প। আর এতেই তুমুল চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ১৯৭৬ সালে ইভানার সঙ্গে ট্রাম্পের দেখা হয়। আর ২০২২ সালে ইভানার মৃত্যু হয়। ট্রাম্পের সঙ্গে ডিভোর্সের মামলা চলাকালীন ধর্ষণের অভিযোগ এনেছিলেন তিনি। পরে যদিও সেই অভিযোগ তুলে নেন।

জানা যায়, ‘দ্য অ্যাপ্রেন্টিস’ সিনেমায় দেখানো হয়েছে ট্রাম্পের ভুঁড়ি নিয়ে কটাক্ষ করেছেন ইভানা। আর তাতেই আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্টের হাতে ধর্ষণের শিকার হতে হয় তাকে। আবার একটি দৃশ্যে দেখানো হয় চুল পড়ার জন্য লাইপোসাকশন ও সার্জারি করাচ্ছেন ট্রাম্প। সব মিলিয়ে বিতর্কে ভরপুর এই ছবি!

এই বিতর্ক সামনে আসতেই নির্মাতাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি দিয়েছে ট্রাম্পের টিম। সিনেমাটিকে তারা ‘আবর্জনা’ এবং ‘মানহানি’ বলে অভিহিত করেছেন। রেগে গিয়েছেন ট্রাম্পের অনুরাগীরাও। অবশ্য, পরিচালক আলি আব্বাসির বক্তব্য, কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া আগে দর্শক বা ট্রাম্পের অনুগামীরা যাতে পুরো সিনেমাটি ভালো করে দেখেন।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles