23.3 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০২৪

আমার জীবনটা আরও সুন্দর হলো: পরীমনি

আমার জীবনটা আরও সুন্দর হলো: পরীমনি
চিত্রনায়িকা পরীমনি

চিত্রনায়িকা পরীমনির ছেলে পুণ্যর বয়স এখনো দুই বছর পূর্ণ হয়নি। এর মধ্যে একটি ফুটফুটে মেয়ে দত্তক নিয়েছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের এই অভিনেত্রী।

কিভাবে, কোথা থেকে, কোন পরিস্থিতিতে কন্যাসন্তান দত্তক নিলেন পরীমনি- এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিনেত্রী বলেন, ও আমার সন্তান। কিভাবে নিলাম, কেন নিলাম, কোথা থেকে নিলাম- এসব এখানে তুচ্ছ। আমি ওর মা। এটাই এখন তার বড় পরিচয়। সব প্রশ্নের ওপরে প্রিয়ম তার সন্তান। এটাই বড় কথা। কোনো প্রশ্নের ব্যাখ্যা দেওয়ার প্রয়োজন নেই এখানে।

- Advertisement -

মেয়ের নাম রেখেছেন সাফিরা সুলতানা প্রিয়ম। ৩ মে রাতে প্রিয়মের জন্ম হয়েছে। জন্মের ঘণ্টা দুয়েক পর চিকিৎসকের হাত থেকে সরাসরি পরীমনির কোলে আসে বাচ্চাটি। একদিন পরই শিশুটিকে বাসায় নিয়ে আসেন অভিনেত্রী।

পরীমনি বলেন, এখন আমার এক ছেলে, এক মেয়ে। পিঠাপিঠি দুটি সন্তান। দুই ভাই-বোন তারা। মনেই হচ্ছে না প্রিয়মকে আমি পেটে ধারণ করিনি। পুণ্যের মতো একই ফিলিংস প্রিয়মকে ঘিরে। এখন থেকে আমার ঘরে সেভাবেই বড় হবে সে।

পরীমনি বলেন, আমার জীবনটা আরও সুন্দর হলো। জীবনটা কানায় কানায় পূর্ণ হলো। দুনিয়াটা আরও বড় হলো। দায়িত্বও বেড়ে গেল।

অভিনেত্রী বলেন, এর জন্য আমার কোনো পূর্বপরিকল্পনা ছিল না। ভাবিওনি সন্তান দত্তক নেব। আরেক সন্তানের মা হব। হুট করেই এটি হয়ে গেছে। আমাকে সন্তানের দায়িত্ব নিতে হয়েছে। ওপরওয়ালা তো মানুষের ভাগ্যে কত কিছুই লিখে রাখেন, যা আপনি খণ্ডাতে পারবেন না। ওপরওয়ালা আমার জন্য লিখে রেখেছিলেন আরেকটি সন্তানের মা হব, আমি হয়েছি। আমার এই সন্তান ওপরওয়ালার পবিত্র দান। ওপরওয়ালা তাকে আমার কাছে পাঠিয়েছেন।

পরীমনি বলেন, আমি খুবই আনন্দচিত্তে, খুশি মনে প্রিয়মকে গ্রহণ করেছি। আমি কখনই ভাবতে চাই না, ওকে আমি পেটে ধারণ করিনি। আমার পুণ্য ছেলেসন্তান, প্রিয়ম মেয়েসন্তান। পুণ্য হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমার ভেতরে যেমন অনুভূতি কাজ করেছে, প্রিয়মের জন্য একই অনুভূতি কাজ করেছে।

পরীমনি বলেন, দত্তক নিতে একটা আনুষ্ঠানিকতা আছে, নিয়ম আছে। সব নিয়মকানুন মেনেই আমি সন্তানকে গ্রহণ করেছি।

রোববার প্রিয়মের বয়স হলো আট দিন। পরী জানান, ও সুস্থ আছে। চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে আছে।

পরীমনি বলেন, প্রিয়ম দেখতে অনেক মিষ্টি। ওকে দেখলে বোঝার উপায় নাই যে সে আমার পেটের সন্তান নয়। খুবই শান্ত। ওভাবে কান্নাকাটি করে না। আমার দিকে কী সুন্দর করে তাকিয়ে থাকে। পুণ্য এখনই খেলা শুরু করেছে তার সঙ্গে। মনে হচ্ছে, পুণ্যও অনেক খুশি প্রিয়মকে পেয়ে।

এদিকে পরীমনি জানালেন, ২০ মে’র পর প্রিয়মের আকিকা দেবেন। আরও আগেই আকিকা অনুষ্ঠান করতাম। ছোটখাটো অনুষ্ঠান করে এটি করব। এর জন্য একটু সময়ও লাগবে। সোমবার থেকে আমার ‘রঙিলা কিতাব’ ওয়েব সিরিজের শুটিং শুরু হবে খাগড়াছড়িতে। শুটিংয়ের ফাঁকে তিন-চার দিনের বিরতি আছে। আশা করছি ওই সময় ঢাকায় ফিরে আকিকা অনুষ্ঠানটি করে ফেলব।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles