14.1 C
Toronto
রবিবার, মে ২৬, ২০২৪

প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ, ইউপি সদস্যসহ তিনজন কারাগারে

প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ, ইউপি সদস্যসহ তিনজন কারাগারে

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক তরুণীকে (১৮) ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় আটক এক ইউপি সদস্যসহ তিনজনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। সোমবার (৮ এপ্রিল) নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এর আগে গত রোববার উপজেলার রাজগঞ্জ ইউনিয়ন থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

- Advertisement -

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলো– মো. ফরহাদ, রাজগঞ্জ ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. আনোয়ার হোসেন ওরফে হোসেন মেম্বার ও গ্রাম পুলিশ মো. আব্বাস।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বেগমগঞ্জ থানার ওসি আনোয়ারুল ইসলাম জানান, ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ভুক্তভোগী তরুণীকে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করে সোমবার নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করলে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আসামি ফরহাদ (২২) ভুক্তভোগী তরুণীর পরিচিত। ওই তরুণীকে সে বিভিন্ন সময় প্রেমের প্রস্তাব দেয়। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ফরহাদ কৌশলে ওই তরুণীকে নির্মাণাধীন একটি ভবনে নিয়ে ধর্ষণ করে। ফরহাদের হুমকির কারণে ভুক্তভোগী ঘটনাটি কাউকে জানাননি। পরদিন সন্ধ্যায় ফরহাদ একই স্থানে আবারও ওই তরুণীকে ডেকে নেন। প্রতিবেশীরা বিষয়টি টের পেয়ে তরুণীর মাকে খবর দিলে তিনিসহ প্রতিবেশীরা গিয়ে হাতেনাতে ফরহাদকে আটক করেন।

এরপর বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য আনোয়ার হোসেন ও গ্রাম পুলিশ আব্বাসকে জানিয়ে তাদের কাছে ফরহাদকে হস্তান্তর করেন তারা। কিন্তু ইউপি সদস্য ও গ্রাম পুলিশ ফরহাদকে থানায় সোপর্দ না করে টাকার বিনিময়ে পালিয়ে যেতে সহায়তা করেন। এরপর ভুক্তভোগীর মা ফরহাদ, আনোয়ার হোসেন ও আব্বাসকে আসামি করে বেগমগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।

সূত্র : চ্যানেল২৪

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles