13.7 C
Toronto
মঙ্গলবার, এপ্রিল ১৬, ২০২৪

মুশতাক-তিশার বিয়ের বিষয়ে তদন্ত করবে ডিবি

মুশতাক-তিশার বিয়ের বিষয়ে তদন্ত করবে ডিবি
মুশতাক তিশা দম্পতি ছবি সংগৃহীত

আলোচিত দম্পতি খন্দকার মুশতাক আহমেদ ও সিনথিয়া ইসলাম তিশার বিয়ের বিষয়ে তদন্ত করবে ডিবি। রবিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে এ তথ্য জানিয়েছেন ডিবিপ্রধান হারুন অর রশীদ।

আজ দুপুরে তিশার বাবা সাইফুল ইসলাম বিকাল ৩টা ২০ মিনিটের দিকে রাজধানীর মিন্টু রোডের ডিবি কার্যালয়ে যান। সেখানে ডিবি প্রধান বরাবর একটি আবেদন করেন।

- Advertisement -

তিশার বাবার আবেদন সম্পর্কে ডিবি প্রধান বলেন, ‘তিনি অনেক কিছু বলেছেন। তাকে ফোনে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখবো।’

এক প্রশ্নের জবাবে হারুন অর রশীদ বলেন, ‘এর আগে মুশতাক এবং তার স্ত্রী তিশা এসেছিলেন আমাদের কাছে। তারাও একটি আবেদন করেছে। সেটিরও তদন্ত করা হবে।’

মুশতাক-তিশার বিয়ে নিয়ে সাইফুল ইসলাম বিভিন্ন অভিযোগ করছেন—‘এ বিষয়ে ডিবি প্রধান বলেন, আমরা সার্বিক বিষয়েই তদন্ত করবো। এরপর প্রকৃত বিষয়টি উঠে আসবে। তদন্ত না হওয়া পর্যন্ত কিছু বলা যাচ্ছে না।’

ডিবি কার্যালয়ে সাইফুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, তাকে এবং তার ছোট মেয়েকে হুমকি দেওয়া হয়েছে। সেই বিষয়ে নিরাপত্তা চেয়ে আবেদন করেছেন তিনি।

এদিকে বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) খন্দকার মুশতাক আহমেদ ও সিনথিয়া ইসলাম তিশাকে এবার লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছেন এক অভিভাবক। মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীর অভিভাবক ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. জাকির হোসাইনের পক্ষে অ্যাডভোকেট মো. তানভীরুল ইসলাম রেজিস্ট্রি ডাকযোগে এ নোটিশ পাঠিয়েছেন।

লিগ্যাল নোটিশে মুশতাক-তিশা দম্পতি জ্ঞানপাপী, ভণ্ড, কু-শিক্ষিত, সমাজ বিরোধী, যৌন উত্তেজনা সৃষ্টিকারী, তরুণ প্রজন্ম ধ্বংসকারী, প্রতারক ও সভ্যতা বিরোধী লোক হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

নোটিশ পাওয়ার ১৫ দিনের মধ্যে পাবলিক প্ল্যাটফর্মে ও ডিজিটাল মাধ্যমে মুশতাক-তিশা দম্পতির দৃশ্যমান যত প্রকাশনা, ভিডিও ও সাক্ষাৎকার রয়েছে তা তুলে নিতে কিংবা ডিলিট করে নিতে বলা হয়েছে লিগ্যাল নোটিশে। এ ছাড়া ভবিষ্যতে এসব বেহায়াপনা ও নোংরা বিষয়বস্তু নিয়ে কোনো ভিডিও তৈরি থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles