13 C
Toronto
বুধবার, জুন ১২, ২০২৪

পার্কের বাথরুমে বন্ধুর অন্তরঙ্গ ভিডিও ধারণ করে ব্ল্যাকমেল

পার্কের বাথরুমে বন্ধুর অন্তরঙ্গ ভিডিও ধারণ করে ব্ল্যাকমেল
প্রেমিকসহ দুই যুবকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও পর্নোগ্রাফির আইনে মামলা করলেন তরুণী

নেত্রকোণার মোহনগঞ্জ পৌর শহরের শিশু পার্কের বাথরুমে এক কলেজছাত্রীর সঙ্গে বন্ধুর অন্তরঙ্গ অবস্থার ভিডিও ধারণ করেন দুই যুবক। সেই ভিডিও ভুক্তভোগী তরুণীকে ম্যাসেঞ্জারে পাঠিয়ে মোটা অংকের টাকা দারি করে ওই দুই যুবক। টাকা না পেয়ে সেই ভিডিও পরিচিত অনেকের কাছে পাঠায় তারা। এক পর্যায়ে পুলিশের হাতে পৌঁছায় সেই ভিডিও। রবিবার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে পুলিশ তিনজনকেই আটক করে।

সোমবার ভুক্তভোগী কলেজছাত্রী বাদী হয়ে প্রেমিকসহ দুই যুবকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও পর্নোগ্রাফির আইনে মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে সোমবার বিকেলে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

- Advertisement -

আটককৃতরা হলেন, আটপাড়া উপজেলার দেবীদ্বার গ্রামের রোদ্র তালুকদার (১৯), মোহনগঞ্জের বড়কাশিয়া গ্রামের সাজিত মিয়া (২০) ও একই উপজেলার পানুর গ্রামের ছাব্বির মিয়া (১৯)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ৩ জানুয়ারি মোহনগঞ্জ শিশুপার্কের বাথরুমে ওই তরুণীর সঙ্গে একান্তে মিলিত হন রোদ্র তালুকদার। বাহিরে পাহারার দায়িত্বে থাকে ছাব্বির ও সাজিত। তবে বাথরুমে আগে থেকেই ক্যামেরা লাগিয়ে কৌশলে তাদের অন্তরঙ মুহূর্তের ভিডিও ধারণ করে ওই দুইজন। সেই ভিডিও রোদ্র ও ওই তরুণীর ম্যাসেঞ্জারে পাঠিয়ে ব্ল্যাকমেইল করে টাকা দাবি করে ছাব্বির ও সাজিত। টাকা না পেয়ে পরিচিত অনেকের কাছে সেই ভিডিও পাঠাতে থাকে তারা। ঘটনাটি পরিচিত লোকজনের কাছে জানাজানির এক পর্যায়ে সেই ভিডিও পুলিশের হাতে চলে যায়। পরে পুলিশ গতকাল রবিবার বিকালে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে। সোমবার ওই তরুণী বাদী হয়ে তিনজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও পর্নগ্রাফি আইনে মামলা দায়ের করেন। এ মামালায় তাদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে সোমবার বিকেলে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

মোহনগঞ্জ থানার ওসি মো. দেলোয়ার হোসেন জানান, ভুক্তভোগী ওই তরুণীর করা মামলায় তিনজনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। পরে সোমবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles