3.4 C
Toronto
সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৪

বাংলাদেশ থেকে জনবল নিয়োগে খরচ কমাল সৌদি

বাংলাদেশ থেকে জনবল নিয়োগে খরচ কমাল সৌদি

বাংলাদেশ থেকে জনবল তথা গৃহকর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ খরচের সীমা কমিয়েছে সৌদি আরব। খবর গালফ নিউজ।

- Advertisement -

মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) দেশটির মানব সম্পদ ও সামাজিক উন্নয়নবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে গালফ নিউজ জানায়, বাংলাদেশ, ফিলিপাইন, শ্রীলঙ্কা, উগান্ডা, কেনিয়া এবং ইথিওপিয়া সহ বিশ্বে বিভিন্ন দেশ থেকে গৃহকর্মী নিয়োগের আগের নির্ধারিত ফি কমানো হবে।

দেশটির মানব সম্পদ ও সামাজিক উন্নয়নবিষয়ক মন্ত্রণালয় জানায়, নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এখন থেকে বাংলাদেশ থেকে গৃহকর্মী নিয়োগের ফি সাড়ে ১১ হাজার থেকে ১৩ হাজার সৌদি রিয়াল নির্ধারণ করা হয়েছে। যা বাংলাদেশি প্রায় ৩ লাখ ৩৬ হাজার ৪৬৭ থেকে ৩ লাখ ৮০ হাজার ৪৬৭ টাকা।

এছাড়া ফিলিপাইনের নাগরিকদের জন্য ১৪ হাজার ৭০০ থেকে ১৫ হাজার ৯০০, শ্রীলঙ্কার ১৩ হাজার ৮০০ থেকে ১৫ হাজার, কেনিয়ার ৯ হাজার থেকে ১০ হাজার ৮৭০, উগান্ডার ৮ হাজার ৩০০ থেকে সাড়ে ৯ হাজার, এবং ইথিওপিয়ার ৫ হাজার ৯০০ থেকে ৬ হাজার ৯০০ সৌদি রিয়াল নির্ধারণ করা হয়েছে।

মন্ত্রণালয় জানায়, নিয়োগ খাতের ব্যয়ের সাথে সামঞ্জস্য রেখে ন্যায্য মূল্য নিশ্চিতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এছাড়াও মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে লাইসেন্সপ্রাপ্ত নিয়োগকারী সংস্থা এবং অফিসগুলোকে নির্দিষ্ট কিছু দেশ থেকে গৃহকর্মী নিয়োগে ফি’র সর্বোচ্চ সীমা নির্ধারণের নির্দেশ দেয়া হয়।

এর আগে গত বছর গৃহকর্মীদের ক্ষেত্রে কয়েকটি নিয়ম চালু করে সৌদি আরবের শ্রম আইন কর্তৃপক্ষ। নতুন নিয়ম অনুযায়ী কারো বয়স ২৪ বছরের নিচে হলে গৃহকর্মী হিসেবে আবেদন করতে পারবে না।

সৌদি নাগরিক, উপসাগরীয় দেশগুলোর নাগরিক এবং সৌদি পুরুষদের বিদেশি স্ত্রী ও তাদের মা গৃহকর্মী নিয়োগের জন্য ভিসার আবেদন করতে পারবেন।

এ ছাড়া সৌদি প্রিমিয়াম রেসিডেন্সি পারমিটধারীরাও এ ধরনের ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। তবে নিয়োগদাতাদের আর্থিক সক্ষমতার বিবেচনায় নেয়া হবে।

সৌদি শ্রম কর্তৃপক্ষ অভ্যন্তরীণ শ্রমবাজার নিয়ন্ত্রণের চেষ্টার অংশ হিসেবে গৃহকর্মী ও নিয়োগদাতার অধিকার ও দায়িত্ব সম্পর্কে জানতে সৌদির মানব সম্পদ মন্ত্রণালয় মসনদ নামের একটি প্ল্যাটফর্ম প্রতিষ্ঠা করেছে।

প্ল্যাটফর্মটি ভিসা ইস্যু, নিয়োগ আবেদন এবং নিয়োগদাতা ও কর্মীর মধ্যেকার চুক্তিভিত্তিক সম্পর্ক নির্ধারণ করার মতো সেবা দিয়ে থাকে।

সৌদি আরবে গার্হস্থ্য শ্রমিকদের মধ্যে গৃহকর্মী, গাড়ি চালক, পরিচ্ছন্নতাকর্মী, রাঁধুনি, নিরাপত্তাকর্মী, কৃষক, দরজি, গৃহশিক্ষক ও সন্তান দেখাশোনার কর্মীদের বিবেচনা করা হয়।

এর আগে, গত সপ্তাহে মধ্যপ্রাচ্যের আরেক দেশ কুয়েত বাংলাদেশ থেকে গৃহকর্মী নিয়োগের জন্য সর্বোচ্চ ফি নির্ধারণ করে। গত ৮ জানুয়ারি কুয়েতের বাণিজ্য ও শিল্পমন্ত্রী মোহাম্মদ আল আইবান ফি নির্ধারণের বিষয়ে নতুন এক নির্দেশনা জারি করেন।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles