9.5 C
Toronto
বুধবার, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২৪

‘স্ত্রীর হাতে খুন হতে পারি’

‘স্ত্রীর হাতে খুন হতে পারি’
<br >স্ত্রী আথিয়ার সঙ্গে রাহুল ছবি সংগৃহীত

ইনজুরির কারণে দীর্ঘ দিন মাঠের বাইরে থাকার পর গত সেপ্টেম্বরে এশিয়া কাপে ভারত দলে ফিরেছিলেন লোকেশ রাহুল। এর আগে মে মাসের শুরুতে আইপিএলে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরের বিপক্ষে ফিল্ডিং করতে গিয়ে ডান পায়ে চোট পেয়েছিলেন এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটার। চোটের কারণেই আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল খেলা সম্ভব হয়নি তার।

৩১ বছর বয়সী ক্রিকেটারকে চোটের কারণে পরে অস্ত্রোপচার করাতে হয়। শরীরে ছুরি-কাঁচি চলার পর রাহুল সুস্থ হয়ে ওঠেন ধীরে ধীরে। এরপর তিনি বেঙ্গালুরুর জাতীয় অ্য়াকাডেমিতে শুরু করে দেন পুনর্বাসন। এরপর এশিয়া কাপ ও বিশ্বকাপ খেলেন। রাহুল জানান, চোট-আঘাতের ওই সময়টা তার স্ত্রী আথিয়া শেঠি ও পরিবার পাশে না থাকলে তার পক্ষে এত দ্রুত ফেরা সম্ভব হত না।

- Advertisement -

সম্প্রতি স্টার স্পোর্টসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন রাহুল। সেখানে আথিয়ার সঙ্গে তার যুগলবন্দির প্রসঙ্গে উঠে আসে, ‘সে সবসময় আমার সঙ্গেই থাকে। ও আমার চেয়ে বেশি হতাশ হয়ে পড়ত ও রেগে যেত। তাই বাকি সব ভুলে আমি চেষ্টা করতাম ওকে শান্ত রাখতে। তবে ওইপ্রথমবার ও আমাকে এরকম খারাপ সময়ের মধ্য়ে দিয়ে যেতে দেখেছিল। ওই সময়টা আমাদের দু’জনের জন্যই কঠিন ছিল।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমি বাড়িতে ভালো ছিলাম। ছোট ছোট জিনিসগুলো নিয়ে স্ত্রীর সঙ্গে পরিবারকে নিয়ে খুশিতে ছিলাম। যা আমাকে দ্রুত সেরে উঠতে সাহায্য করেছিল। তাই দ্রুত খেলায় ফিরতে পেরেছিলাম। অনেক বেশি সুখি হয়ে খেলার রোমাঞ্চ উপভোগ করেছি। ক্রিকেট আমাকে প্রচুর আনন্দ দিয়েছে।’

এই সাক্ষাৎকারেই রাহুল আরো একটি বিষয় জানিয়েছেন, যে তিনি খেলার সময়ে একবারও স্ত্রীর কথা ভাবেন না। রাহুল বলেন, ‘ও হয়তো শুনলে আমাকে খুন করে দিতে পারে। সত্যি বলতে আমি মাঠে নেমে ওর কথা ভাবি না। মাঠে আমার ভাবনায় শুধুই ক্রিকেট। আমি এটা খারাপ ভাবে বা আনরোম্য়ান্টিক ভাবে বললাম না। ও আমাকে প্রচুর ভালোবাসা দেয় ও অনেক শান্তি পাই।’

বর্তমানে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ভারত দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলছে। প্রথম টেস্টে ভারত বাজেভাবে হারে। কিন্তু সেই টেস্টেও রাহুলের সেঞ্চুরি সবার মন জয় করে নিয়েছে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles