19.2 C
Toronto
রবিবার, জুন ১৬, ২০২৪

নেই কোনো সন্তান, লতা মঙ্গেশকরের ৩৭০ কোটির সম্পত্তি কে পাবেন?

নেই কোনো সন্তান, লতা মঙ্গেশকরের ৩৭০ কোটির সম্পত্তি কে পাবেন?
লতা মঙ্গেশকর

সুরসম্রাজ্ঞী লতা মঙ্গেশকর। সুরের জগতে তিনি অমর। তাঁর গান আজও দর্শক মনে তরতাজা। থেকে যাবে যুগের পর যুগ।

তাঁর কণ্ঠস্বরে সকলেই ছিলেন মুগ্ধ। ২০২২ সালে ৯২ বছর বয়সে প্রয়াত হন ভারতরত্ন সুরসম্রাজ্ঞী লতা মঙ্গেশকর। তাঁর মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে আসে গোটা ভারতে। বলিউডে দশকের পর দশক নায়িকার কন্ঠ ছিলেন তিনি।

- Advertisement -

ভারতীয় সিনেমায় প্লেব্যাক সিঙ্গার হিসাবে লতা জার্নি শুরু করেছিলেন মাত্র ১৩ বছর বয়সে। কিছুদিনের মধ্যেই বাবাকে হারিয়ে পুরো পরিবারের দায়িত্ব নেন লতা। তাঁর প্রথম উপার্জন ছিল ২৫ টাকা। ধীরে ধীরে বলিউডে বিস্তার করেছেন তাঁর সাম্রাজ্য।

গানের রয়্যালটি থেকেই মাসে ৪০ লক্ষ টাকা আয় করতেন লতা মঙ্গেশকর। সবমিলিয়ে বছরে প্রায় ৫ কোটি ছিল তাঁর উপার্জন।

দক্ষিন মুম্বাইয়ের অভিজাত এলাকায় অবস্থিত তাঁর বাড়ি ‘প্রভাকুঞ্জ।’ সেই বাড়ির গ্যারাজেই দেখা যায় বেশ কয়েকটি অভিজাত গাড়ি। বুইক, শার্ভোলেট, বেন্টলি ফ্লাইং স্পার এই তিনটি গাড়ির পাশাপাশি সেখানে রয়েছে একটি মার্সিডিজ যেটি বীর-জারা ছবির পর তাঁকে উপহার দিয়েছিলেন যশ চোপড়া।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, তাঁর মোট সম্পত্তির পরিমাণ ৫০ মিলিয়ন ডলার অর্থাৎ প্রায় ৩৭০ কোটি টাকা। তবে কিছু কিছু সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০০ কোটির মতো সম্পদ রেখে গেছেন গায়িকা। তবে এত সম্পদ তাহলে ভোগ করবে কে? এর উত্তরাধিকারী কে? আজীবন কুমারী থেকেছেন লতা। বিয়ে করেননি। নেই কোনো সন্তান।

টিভি৯ বাংলার একটি প্রতিবেদন অনুসারে, লতা মঙ্গেশকরের আইনজীবী এর আগে জানিয়েছিলেন যে গায়িকা সমস্ত সম্পত্তি তাঁর ট্রাস্টে চলে যাবে। তাঁর বাবার নামেই তিনি একটি ট্রাস্ট চালাতেন। সমস্ত সম্পত্তি সেখানেই চলে যাবে বলে জানিয়েছেন আইনজীবি। আবার কখনও শোনা গিয়েছিল, এই সম্পত্তি নাকি পেতে চলেছেন তাঁর ভাই বোনদের মধ্যে কেউ! সম্পত্তির মোট পরিমানের মতো সম্পত্তির বন্টণ নিয়েও রহস্য রয়ে গেছে এই কিংবদন্তি গায়িকার।

তবে তাঁর সম্পদ কে পাচ্ছেন, সময়ই সেটা বলে দেবে। যদিও ট্রাস্টের টাকায় এখনই কারও কোনও অধিকার নেই। সেই টাকা সংরক্ষিত রয়েছে সেখানকার জন্যই। পরবর্তীতে কী হবে, তা নিয়ে এখনও কোনও মন্তব্য করেননি প্রয়াত গায়িকার আইনজীবী।

তবে গায়িকার গাড়ি বা অন্যান্য জিনিস এখন তাঁর পরিবারের সকলে মিলেই ব্যবহার করে থাকেন। কিছু জিনিস যত্নে তুলেও রাখা আছে। যা ব্যবহার করতেন লতাজি। পরবর্তীতে যদি কেউ তা নিয়ে কোনও মিউজিয়াম কিংবা সংরক্ষণ শালা করেন, সেখানে সেই সমস্ত জিনিস দেওয়া হবে বলেই জানা গিয়েছিল পরিবার সূত্রে।

লতা মঙ্গেশকর তার সুদীর্ঘ সংগীত জীবনে ৩৬ টি ভাষায় ৫০ হাজারেরও বেশি গান গেয়েছেন। ২০২২ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি মৃত্যুবরণ করেন এই কিংবদন্তি গায়িকা।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles