23.6 C
Toronto
শুক্রবার, জুন ২১, ২০২৪

কান্নার জন্য টাকায় পাওয়া যাবে সঙ্গী, পুরুষেরা মুছবেন চোখের পানি

কান্নার জন্য টাকায় পাওয়া যাবে সঙ্গী, পুরুষেরা মুছবেন চোখের পানি

জাপানে টাকা দিলেই পাওয়া যাচ্ছে কান্না-সঙ্গী। নিঃসঙ্গতা হোক কিংবা অন্য কোনো কষ্ট— ভাগ করে নিলে যন্ত্রণা কমে যায়। সেই চিন্তা থেকেই দেশটিতে চালু করা হয়েছে কষ্ট ভাগ করে নেয়ার সুযোগ।

- Advertisement -

জাপানে কান্নার সময়ে চাইলে পাশে থাকবেন সুদর্শন পুরুষ। তার চোখ থেকেও গড়াবে জল। কান্নার এমন সঙ্গী পেলে আর কী চাই! তবে হ্যাঁ, কান্নার সঙ্গী পেতে খরচ পকেট থেকে খসবেও বেশ খানিকটা টাকা। ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১০-১৫ হাজার টাকা।

হিন্দি ছবি ‘রুদালি’র কথা অনেকেরই মনে আছে। সেখানে নিজের কান্না অন্য কাউকে দিয়ে কাঁদিয়ে নিতে লোক ভাড়া করার গল্প ছিল। তবে রঙিন পর্দায় কত কিছুই না হয়। বাস্তবেও যে এমন হতে পারে, তা কে জানত!

গোটা বিষয়টি জাপানি উদ্যোগপতি হিরোকি তেরাইয়ের মস্তিষ্কপ্রসূত। মেয়েরা কাঁদলে ঝকঝকে চেহারার সুপুরুষ পৌঁছে যাবে তাদের কাছে। সুদর্শন পুরুষেরা সান্ত্বনা দেবেন, যত্ন করে চোখের জল মোছাবেন, আবার নিজেও খানিক ক্ষণ কাঁদবেন। জাপানি পরিভাষায় এই পদ্ধতির নাম ‘রুই-কাৎসু’। কাঁদতে চাইলে অনলাইনে বুক করতে হবে নিজের নাম ও কাঁদার সময় জানিয়ে। সেই ঠিকানায় পৌঁছে যাবেন সুদর্শন যুবক।

কিন্তু এমন ভাবনা কেন ভাবলেন তেরাই? তিনি জানান, এই ভাবনা প্রথম মাথায় আসে জাপানি দম্পতিদের বিবাহবিচ্ছেদের পদ্ধতির কথা ভেবে। নানা কাজে ব্যস্ত থাকায় পুরুষদের বদলে মহিলারাই বিচ্ছেদের আবেদন করেন। সংসার ভেঙে যাওয়ার কষ্ট পীড়া দেয় উভয়কেই। পুরুষরা নানা কাজে ব্যস্ত থাকায় কষ্ট মানিয়ে নিলেও মহিলারা পারেন না। সে ক্ষেত্রে মহিলারাই বেশি ভেঙে পড়েন। কিন্তু এমন কষ্টের সময়ে সঙ্গীও পান না।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles