13.5 C
Toronto
রবিবার, মে ১৯, ২০২৪

বিদেশিনী প্রেমিকাকে দেশে ডেকে এনে হত্যা!

বিদেশিনী প্রেমিকাকে দেশে ডেকে এনে হত্যা!
নিনা বার্গার ছবি সংগৃহীত

ঘটনাটি ভারতের। দেশটির পশ্চিম দিল্লির তিলক নগরে গত শুক্রবার এক সুইডিশ তরুণীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে হত্যাকাণ্ডের পেছনে রয়েছে ওই তরুণীরই প্রেমিক। তারপর গ্রেফতার করা হয় ওই প্রেমিককে। তার নাম গুরপ্রীত সিং।

জানা গেছে, গুরপ্রীত সুইজারল্যান্ডে গেলে সেখানে তার সঙ্গে পরিচয় হয় নিনা বার্গার নামের ওই তরুণীর। তারপর তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কিন্তু সম্প্রতি বিদেশিনী প্রেমিকাকে ডেকে এনে আনেন গুরপ্রীত।

- Advertisement -

স্থানীয় গণমাধ্যমে এ নিয়ে বিভিন্ন ধরনের বক্তব্য আসছে। পুলিশ জানিয়েছে, গুরপ্রীত বিভিন্ন সময় তার বক্তব্য পরিবর্তন করছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিয়ে করতে অস্বীকার করায় সুইডিশ ওই তরুণীকে খুন করে গুরপ্রীত। আবারও কোনো কোনো প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অন্য কারও সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে, এই সন্দেহের বশেই তাকে খুন করেন দিল্লির এই যুবক।

পুলিশ বলছে, সুইশ ওই তরুণীর মৃতদেহ যখন উদ্ধার হয়, সেই সময় তার হাত-পা বাঁধা ছিল। শরীরের ওপরের দিকের অংশ ছিল কালো প্লাস্টিকে ঢাকা।

ভারতীয় গণমাধ্যমে লেখা হচ্ছে— গুরপ্রীতের সঙ্গে অনেক দিন ধরেই সম্পর্ক ছিল ওই তরুণীর। প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে মাঝেমধ্যে সুইজারল্যান্ডেও যেতেন গুরপ্রীত। কিন্তু প্রেমিকার অন্য কারও সঙ্গে সম্পর্ক আছে, এই সন্দেহ মনে দানা বাঁধতেই সমস্যার সূত্রপাত।

সেখান থেকেই প্রেমিকাকে খুন করার সিদ্ধান্ত নেন গুরপ্রীত। তবে নিজে সুইজারল্যান্ডে না গিয়ে প্রেমিকাকেই ভারতেই আসতে বলেন। এরপর ম্যাজিক দেখানোর নাম করে প্রেমিকার হাত-পা বেঁধে ফেলেন গুরপ্রীত। তারপরেই ওই তরুণীকে খুন করেন তিনি।

অভিযুক্ত গুরপ্রীত কোনো মানবপাচার চক্রের সদস্য কিনা তাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles