মার্গারেট ট্রুডোর বক্তব্যের বিস্তারিত উল্লেখ করে চিঠি

- Advertisement -
মানসিক স্বাস্থ্যের ওপর মহামারির প্রভাব নিয়ে ১৪ অক্টোবর আয়োজিচত এলিভেট.সিএ’র থিঙ্ক ২০৩০ অনুষ্ঠানে মার্গারেট ট্রুডোর বক্তব্যের বিস্তারিত উল্লেখ করে একটি চিঠি লিখেছেন কনজার্ভেটিভ এমপি মাইকেল ব্যারেট

মানসিক স্বাস্থ্যের ওপর মহামারির প্রভাব নিয়ে ১৪ অক্টোবর আয়োজিচত এলিভেট.সিএ’র থিঙ্ক ২০৩০ অনুষ্ঠানে মার্গারেট ট্রুডোর বক্তব্যের বিস্তারিত উল্লেখ করে একটি চিঠি লিখেছেন কনজার্ভেটিভ এমপি মাইকেল ব্যারেট। চিঠিতে তিনি উল্লেখ করেছেন, অনুষ্ঠানে মার্গারেট ট্রুডোর উপস্থিতিতে কনফ্লিক্্ট অব ইন্টারেস্ট অ্যাক্টের ৬ (১) ও ৭ ধারা লঙ্ঘিত হয়েছে কিনা সে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। সংস্থাটিতে অর্থ দেওয়ার মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী তার মায়ের ব্যক্তিগত স্বার্থ হাসিলে সহায়তা করেছেন কিনা সে প্রশ্নও উঠছে।
কম প্রতিনিধিত্বশীল কমিউনিটির চাকরি প্রত্যাশীদের সহায়তায় ফেডারেল সরকারের কাছ থেকে ৫৮ লাখ ডলারের তহবিল পেয়েছে টরন্টোভিত্তিক অলাভজনক প্রতিষ্ঠান এলিভেট। সিটিভি নিউজের তরফ থেকে প্রশ্ন করা হলেও সিম্পোজিয়ামে অংশগ্রহণ বাবদ মার্গারেট ট্রুডোকে কি পরিমাণ অর্থ পরিশোধ করতে হয়েছে বা আদৌ হয়েছে কিনা তা জানায়নি সংস্থাটি। তবে অনুষ্ঠানের সঙ্গে সরকারি তহবিলের কোনো সম্পর্কের কথা অস্বীকার করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

ফেডারেল তহবিল প্রাপ্ত একটি গ্রুপ আয়োজিত অনুষ্ঠানে মার্গারেট ট্রুডোর বক্তব্য প্রদানের মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর ক্ষেত্রে কনফ্লিক্ট অব ইন্টারেস্ট অ্যাক্টের লঙ্ঘন হয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে এথিকস কমিশনার মারিও ডিওনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে কনজার্ভেটিভ পার্টি।

- Advertisement -

এক ইমেইল বার্তায় এলিভেটের মহা ব্যবস্থাপক লিসা জেরেমি বলেন, থিঙ্ক ২০৩০ অনুষ্ঠানের জন্য ফেডারেল সরকারের কাছ থেকে কোনো তহবিল নেয়নি এলিভেট।

এদিকে এথিকস কমিশনারকে লেখা চিঠিতে ব্যারেট বলেন, ট্রুডো পরিবারের বক্তৃতার অংশগ্রহণ নিয়ে প্রশ্ন ওঠার ঘটনা এটাই প্রথম নয়।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles