15.7 C
Toronto
রবিবার, মে ১৯, ২০২৪

আমাদের বিয়ে নিয়ে অনেকেই মজা নিচ্ছে, নিক : চাষী আলম

আমাদের বিয়ে নিয়ে অনেকেই মজা নিচ্ছে, নিক : চাষী আলম
তুলতুল ও চাষী আলম

বিয়ে করেছেন চাষী আলম ওরফে ‘হাবু ভাই’। ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ নাটকের এই অভিনেতা জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন ‘হাবু ভাই’ নামেই। শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর গুলশানে জীবনের নতুন ইনিংস শুরু করেছেন তিনি। এর আগে বৃহস্পতিবার পারিবারিকভাবে তার গায়েহলুদ অনুষ্ঠিত হয়।

বিয়েটাকে এখনো অবাস্তব মনে হচ্ছে চাষী আলমের। বললেন, ‘আমার কাছে এখনো মনে হয় না যে আমি বিয়া করছি। মনে হইতেছে এইটা নাটকের কোনো স্ক্রিপ্ট। প্রথম দিন আমরা সবাই, বাসার সবাই মিলে আড্ডা দিছি ভোর পর্যন্ত।

- Advertisement -

এক সাক্ষাৎকারে চাষী আলম বলেন, ‘বিয়ের পরে অনেকেই নানা কথা বলছে, নিউজ হচ্ছে ৫৬ বছর বয়সে বিয়ে করলেন, কাবিলাকে না পেয়ে হাবুকে বিয়ে করলেন। অনেকেই মজা নিচ্ছে, নিক। কিন্তু আমার বয়স কত, কাবিনের সময় আমার ন্যাশনাল আইডি কার্ড কাজি নিয়েছে না? তুলতুলের ন্যাশনাল আইডি কার্ড নিয়েছে তো। উনারা জানেন আসলে আমার বয়স কত।
নিক না মজা, মজা নেওয়ার জন্য নিচ্ছে ওরা।’

৫৬ বছর বয়সে বিয়ে করার যে বিষয়টা, সেটা বুঝলাম ঠিক না। আসলে কত বয়স? এমন প্রশ্নের জবাবে চাষী আলম বলেন, ‘আমার বয়স মোটেও ৫৬ না। অনেক নিচে, এই সংখ্যার চেয়ে অনেক কম। আবার আমার নাকি এক ফ্রেন্ড ছিল শিউলি।
ওর জন্য নাকি ৩৩ বছর পরে বিয়ে করলাম। আপনারা হিসাব করলেও পেয়ে যাবেন। এসব আসলে কী।’

একাধিক স্ত্রীর গুঞ্জন প্রসঙ্গে এই অভিনেতা জানান, বিয়ে বিষয়ে অনেক বিব্রতকর প্রশ্নের মুখেই পড়েছেন নিজের মায়ের কাছে। চাষী বলেন, “আমার মা একদিন একটা নিউজ দেখেছেন। নিউজে, এটা হাবুর ৩ নম্বর বিয়ে। সেই নিউজ দেখে আমার মা আমাকে জিজ্ঞেস করল, ‘তোর আর বউগুলো কোথায়?’ আমরা তো নরমালি নিচ্ছি। আমার ছোট বোনও মজা করে বলছে, ‘তোর অন্যান্য বউ কোথায়?’ তো এসব নিউজ হবেই। হোক।”

নতুন জীবন শুরু নিয়ে তুলতুল বলেন, ‘অসম্ভব ভালো লাগতেছে। আমি এখন পর্যন্ত এই ফিল করিনি যে আমি আমার বাসায় নেই। কেউ বললেও বিশ্বাস করবে না, আমার শাশুড়ি, বড় আপু তারা এত ভালো যে আমি কখনো ফিল করি নাই যে আমি আমার মার থেকে দূরে, আমার বড় বোনের থেকে দূরে আছি।’

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles