23.8 C
Toronto
বুধবার, মে ২২, ২০২৪

আইডিয়ালের ছাত্রীকে বিয়ে করা মুশতাককে যা বললেন হাইকোর্ট

আইডিয়ালের ছাত্রীকে বিয়ে করা মুশতাককে যা বললেন হাইকোর্ট

রাজধানীর মতিঝিলের আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের সিনথিয়া ইসলাম তিশাকে ফাঁদে ফেলে ধর্ষণের অভিযোগে করা মামলায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটির গভর্নিং বডির সদস্য খন্দকার মুশতাক আহমেদের আগাম জামিন আবেদন ফেরত দিয়েছেন হাইকোর্ট। আজ বুধবার বেলা ১১টার দিকে বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আবেদনটি ফেরত দেন।

- Advertisement -

মুশতাকের পক্ষে আদালতে শুনানি করেন ছিলেন আইনজীবী সোহরাব হোসেন। শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এমরান আহম্মদ ভূঁইয়া।

মুশতাকের উদ্দেশে আদালত বলেন, ‘আগে আপনি বিবাহিত ছিলেন কি?’ তখন মুশতাক বলেন, আগের স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে গেছে।

এসময় মুশতাকের আইনজীবী আদালতকে বলেন, তাদের (ছাত্রী ও মুশতাক) বিয়ে হয়ে গেছে। ছাত্রী প্রাপ্তবয়স্ক।

একপর্যায়ে মুশতাকের উদ্দেশে আদালত বলেন, ‘আপনি নৈতিকভাবে কাজটি ঠিক করেননি।’

মুশতাকের আইনজীবী সোহরাব হোসেন বলেন, ওই মামলার অপর আসামিকে হাইকোর্টের অপর একটি দ্বৈত বেঞ্চ জামিন দিয়েছেন। এ সময় রাষ্ট্রপক্ষ জামিনের বিরোধিতা করে। শুনানির একপর্যায়ে আদালত বলেন, ‘আমরা এই আবেদন শুনতে আগ্রহী নই।’ পরে মুশতাকের আইনজীবী আবেদন ফেরতের আরজি জানালে আদালত তা ফেরত দেন।

খন্দকার মুশতাক আহমেদের বিরুদ্ধে ১ আগস্ট ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৮-এ নালিশি মামলা করেন সিনথিয়া ইসলাম তিশার বাবা। মামলায় ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগ আনা হয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ ফাওজিয়া রাশেদীর বিরুদ্ধে। আদালত বাদীর। জবানবন্দি গ্রহণ করে মামলাটি গুলশান থানাকে এজাহার হিসেবে রেকর্ডভুক্ত করার আদেশ দেন। সে অনুযায়ী মামলাটি থানা-পুলিশ নথিভুক্ত করে।

সূত্র : আমাদের সময়

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles