15.7 C
Toronto
রবিবার, মে ১৯, ২০২৪

চিকিৎসকের মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় স্ত্রীসহ গ্রেপ্তার ৩

চিকিৎসকের মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় স্ত্রীসহ গ্রেপ্তার ৩
ডা শাহীন সুলতানা মিরা ও ডা আরিফুল ইসলাম

কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে ডা. আরিফুল ইসলামের (২৯) ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার বিকেলে নিহতের স্ত্রী ডা. শাহীন সুলতানা মিরা এবং মিরার দুই ভাই মো. নাসির উদ্দিন ও মো. এরশাদকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এর আগে, আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে একটি মামলা করেন নিহত চিকিৎসকের বড় ভাই আশরাফুল ইসলাম।

- Advertisement -

মামলা এবং গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন হোসেনপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসাদুজ্জামান টিটু।

ডা. আরিফুল ইসলাম মিঠামইন উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাসিন্দা রফিকুল ইসলামের ছেলে। অভিযুক্ত স্ত্রী ডা. শাহীন সুলতানা মিরা জেলার পাকুন্দিয়া উপজেলার জাঙ্গালিয়া ইউনিয়নের চরকাওনা গ্রামের মৃত সিরাজউদ্দিনের মেয়ে।

ডা. আরিফুল ইসলাম ও ডা. শাহীন সুলতানা মিরা হোসেনপুর পৌর সদরের ঢেকিয়া এলাকার ফায়ার সার্ভিসের পূর্বপাশের মডার্ন জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার নামে একটি ক্লিনিক পরিচালনা করতেন।

জানা যায়, গত শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে হোসেনপুর পৌর সদরের ঢেকিয়া এলাকার ভাড়া বাসার বন্ধ ঘরের ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় ডা. আরিফুল ইসলামের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এছাড়াও ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ মরদেহের পাশ থেকে ‘আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়’ লেখা একটি চিরকুটও উদ্ধার করে। ডা. আরিফুল ইসলামের স্বজনরা এ ঘটনায় পর থেকেই হত্যার অভিযোগ তোলেন।

ওসি মো. আসাদুজ্জামান টিটু জানান, ডা. আরিফুল ইসলামের মরদেহ ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles