15.9 C
Toronto
শুক্রবার, মে ২৪, ২০২৪

প্রেমিকের সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় স্ত্রী, রেগে দুজনকেই কুপিয়ে হত্যা

প্রেমিকের সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় স্ত্রী, রেগে দুজনকেই কুপিয়ে হত্যা
প্রতীকি ছবি

প্রেমিকের সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় স্ত্রীকে দেখে ফেললেন স্বামী। এরপর রাগে আর নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারলেন না। হাতের কাছে কুড়ুাল পেয়ে দুজনকেই দিলেন কোপ। তাতেই মৃত্যু হলো দুজনের। ভারতের মধ্যপ্রদেশে ঘটেছে এই ঘটনা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, মধ্যপ্রদেমের নিওয়ারিতে থাকতেন রামগোপাল (৩৫) ও তার স্ত্রী অনিতা (৩০)। রামগোপাল সন্দেহ করতেন, অনিতা প্রতিবেশী ঘনশ্যামের (৩০) সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িত। একদিন বাড়ি ফিরে নিজেই পেয়ে গেলেন প্রমাণ। চোখের সামনে এই দৃশ্য সহ্য করতে না পেরে দুজনকেই খুন করে বসেন রামগোপাল।

- Advertisement -

নিওয়ারির পুলিশ সুপার অঙ্কিত জয়সওয়াল জানিয়েছেন, অভিযুক্ত রামগোপাল খুশওয়া তার স্ত্রী অনিতা ও প্রতিবেশী ঘনশ্য়ামকে তাদের বাড়িতে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলেন। এরপরই তিনি রাগে খুন করে বসেন।

পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে, ঘনশ্য়াম নানা কালোজাদু জানতেন। সেসব নাকি তিনি অনিতার উপর প্রয়োগ করতেন। তাদের বাড়িতেও তিনি যাতায়াত করতেন। অনিতা অসুস্থ এই অজুহাতে প্রতিবেশী ব্যক্তি তাকে সুস্থ করতে যেতেন বলে দাবি করা হচ্ছে।

তবে রামগোপাল সন্দেহ করতেন তাদের দুজনের মধ্য়ে অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে। তাদেরকে তিনি হাতে নাতে ধরে ফেলেন। ঘরের ভেতর তিনি দুজনকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখেন। এরপরই তিনি কুড়াল নিয়ে দুজনের উপর ঝাঁপিয়ে পড়েন।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের ধারণা আসলে কিছুদিন ধরেই হয়তো সুযোগ খুঁজছিলেন রামগোপাল। স্ত্রীর উপর রাগও ক্রমশ বেড়ে যাচ্ছিল। তবে তারপর একেবারে হাতেনাতে ধরে ফেলেন। চোখের সামনে এমন দৃশ্য মেনে নিতে না পেরে কুড়ুাল দিয়ে কোপাতে শুরু করেন। সেখানেই মৃত্য়ু হয় দুজনের।

পুলিশ জানিয়েছে, মরদেহ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য় পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত চলছে। তবে এর পেছনে আর কারোর হাত রয়েছে কি না সেটাও দেখা হচ্ছে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles