23.3 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০২৪

পরকীয়া ও মারধরের অভিযোগ স্ত্রীর, অভিনেতা বললেন, বিয়েই করেননি!

পরকীয়া ও মারধরের অভিযোগ স্ত্রীর, অভিনেতা বললেন, বিয়েই করেননি!

টেলি অভিনেতা সেজান খানের বিরুদ্ধে গার্হস্থ্য হিংসার অভিযোগ এনেছেন তার স্ত্রী আয়েশা পিরানি। আয়েশার অভিযোগ, বিয়ের পর নিয়মিত তাকে মারধর করতেন সেজান। একাধিক মহিলার সঙ্গে সেজান পরকীয়ার সম্পর্কে জড়ান বলেও দাবি করেন তিনি।

- Advertisement -

সন্তানদের সামনে আয়েশাকে ঘরবন্দি করে রাখতেন সেজান। তার পর স্কাইপে অন্য মহিলাদের সঙ্গে ভিডিও কলে কথা বলতেন। এমনটাই জানিয়েছেন আয়েশা।

সেজানের খারাপ আচরণের বিরুদ্ধে যখন আয়েশা সরব হতেন, তখন নাকি অভিনেতা বলতেন, ‘আমি তোমাকে বিয়ে করেছি। আমার সারাটা জীবন তোমাকে সঁপে দিইনি।’ সেজানের স্বভাব যে ভাল নয় তা প্রকাশ্যে দাবি করেন আয়েশা।

আয়েশা জানান, প্রতি রাতে ফল খাওয়ার অভ্যাস রয়েছে সেজানের। কোনও রাতে তাকে ফল খেতে দেওয়া না হলে আয়েশাকে গালিগালাজ করতেন সেজান। আয়েশার দাবি, তিনি সেজানের জন্য প্রচুর খরচ করেছেন, অনেক অত্যাচারও সহ্য করেছেন। তাই তার পরিবর্তে পাঁচ লক্ষ টাকার ক্ষতিপূরণ চেয়ে অভিনেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।

সেজান বর্তমানে তার প্রেমিকা আফরিনের সঙ্গে একত্রবাস করছেন। তিন বছরেরও বেশি সময় ধরে সম্পর্কে রয়েছেন দু’জনে। চলতি বছরেই নাকি আফরিনের সঙ্গে নিকাহ সারবেন সেজান।

আয়েশার দাবি, তার সঙ্গে সেজানের বিবাহবিচ্ছেদ হয়নি। তাই আফরিনের সঙ্গে সেজান বেআইনি ভাবে থাকছেন। আফরিন এবং সেজান নাকি তাকে অশ্রাব্য ভাষায় ভয়েস নোট পাঠান বলেও অভিযোগ করেছেন আয়েশা।

যদিও সেজান জানান, তার বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। বর্তমানে আমেরিকায় থাকেন আয়েশা।

সেজানের দাবি, আয়েশা তার ‘পাগল অনুরাগী’। সেজ়ানের কথায়, ‘আমি কখনওই বিবাহিত ছিলাম না। আমার নাম ভাঙিয়ে প্রচারের আলোয় আসতে চাইছে ও। আমার তুতো ভাইয়ের স্ত্রীর বোন বলেই চিনি ওকে। করাচিতে থাকেন। শুধু শুধু আমার নাম জড়িয়ে টানাটানি করছেন।’

বাইশ বছর আগে জনপ্রিয় হিন্দি ধারাবাহিক ‘কসৌটি জিন্দেগি কে’-এ অভিনয় করে প্রচারে আসেন অভিনেত্রী শ্বেতা তিওয়ারি। তার বিপরীতে অনুরাগের চরিত্রে অভিনয় করে নিজের পরিচিতি গড়ে তোলেন সেজান খান। অভিনয়ে ক্যারিয়ার তৈরি করবেন বলে মাঝপথেই পড়াশোনায় ইতি টানেন।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles