20.9 C
Toronto
বুধবার, জুলাই ২৪, ২০২৪

আমাকে এসব বলতে বাধ্য করা হয়েছে: বুবলী

আমাকে এসব বলতে বাধ্য করা হয়েছে: বুবলী
শবনম বুবলী

অপু বিশ্বাসের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর শবনম বুবলীকে বিয়ে করেন শাকিব খান। এর পর তাদের ঘর আলো করে আসে ছেলে শেহজাদ খান বীর। ২০২০ সালে শেহজাদের জন্ম হলেও বুবলী তাকে সবার সামনে আনেন ২০২২ সালে। বুবলীকে এসবের জন্য নাকি বাধ্য করা হয়েছিল।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এমনটিই জানান ঢাকাই সিনেমার এ নায়িকা।

- Advertisement -

বুবলী বলেন, তার (শাকিব) কথাবার্তা আপনি দেখেন— পত্রিকায় তার ইন্টারভিউগুলো, ‘কারও কিন্তু কোনো কিছু নেই। সেই কয়দিন পর পর এসব আনছে এবং আজকেও আমি এসব কথা বলতে বাধ্য হচ্ছি।’

‘অনেকে হয়তো বলে আমি কেন এসব বলছি, সামাজিক মাধ্যমে স্টেটমেন্ট দিচ্ছি; কিন্তু তার আগে যে আমাকে বাধ্য করা হয়েছে। কারণ বোবার শত্রু নাই, তিনিই (শাকিব) কিছু দিন আগে বলেছিলেন। আমরা হয়তো ভাবতাম, চুপ থাকলে সব ঠিক হয়ে যাবে’।

বুবলী বলেন, ‘২০১৬ থেকে ২০২২ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আমার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে আমি কিন্তু কোনো কথা বলিনি। তা হলে আমি কেন শেহজাদের বিষয়টি সামনে আনলাম’।

‘অনেকে বলে যে আরেক সন্তানের জন্মদিনে আমি এই বিষয়টি সামনে এনেছি, ২০২০ সালের মার্চে শেহজাদ পৃথিবীতে এসেছে, ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরেও কিন্তু তার আরেক ছেলের জন্মদিন গেছে, ২০২১ সালেও গেছে, তখন কি আমি এই বিষয়টি সামনে এনেছিলাম? ২০২২ সালে কেন আমি বাধ্য হয়ে আনলাম। কারণ আমি তো চেয়েছি সে তার সন্তানদের একচোখে দেখুক।’

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে টেলিভিশন লাইভে ছেলেকে নিয়ে হাজির হন অপু বিশ্বাস, জানান বিয়ের কথা। এর পর ২০১৮ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি অপুর সঙ্গে শাকিবের বিচ্ছেদ কার্যকর হয়। পরে ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে বুবলীও হাজির হন এবং জানান ২০১৮ সালে জুলাইতে তাদের বিয়ে হয়েছে। এর পর শাকিব-বুবলী-অপুর নানা নাটকীয়তা চলছেই।

 

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles