প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে সরকারি বই বিক্রির অভিযোগ

- Advertisement -

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে চরশৌলমারী বহুমুখী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে সরকারি বই বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। প্রায় আট বছরের জমাকৃত এক হাজার ৬০০ কেজি সরকারি পাঠ্যবই বিক্রির করেছেন সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের এই প্রধান শিক্ষক।

- Advertisement -

সম্প্রতি মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে এসব বই বিক্রির অভিযোগে তদন্ত করে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস। উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজারের নেতৃত্বে তদন্ত কমিটি ওই প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে বই বিক্রির অভিযোগের সত্যতা পান বলে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আইবুল ইসলাম নিশ্চিত করেন।

শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা জানান, ওই বিদ্যালয়ের পুরাতন ও নতুন বইগুলো স্থানীয় এক ব্যবসায়ীর দোকানে বিক্রি করেন প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান। গত ২০ অক্টোবর রাতের আধারে চরশৌলমারী বহুমুখী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তার প্রতিষ্ঠানে গচ্ছিত রাখা মাধ্যমিক স্তরের ২০১৩ সাল হতে ২০২১ সালের সরকারি বই ১৬০০ কেজিপ্রতি ১৩ টাকা দরে চরশৌলমারী বাজারের আবুল কাসেম শিকদার নামে এক ব্যবসায়ীর কাছে অবৈধভাবে বিক্রি করেন।

- Advertisement -

আরও পড়ুন : জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় বাংলাদেশ ‘বিশ্বের মডেল’: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

- Advertisement -

অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান বলেন, বিদ্যালয়ের টয়লেট কক্ষে পুরাতন বইগুলো রাখা হয়েছিল। টয়লেট ব্যবহারের জন্য বইগুলো রাখার অন্য কোনো জায়গা না থাকায় উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে বলে বইগুলো বিক্রি করে দিয়েছি।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আইবুল ইসলাম অনুমতি না নিয়ে বিক্রির ব্যাপারে বলেন, ‘সরকারি বই বিক্রি করা আইনত দণ্ডনীয়। একাডেমিক সুপারভাইজের নেতৃত্বে তদন্ত কমিটির মাধ্যমে বিক্রির সত্যতা পাওয়া গেছে। তদন্ত রিপোর্ট ইউএনওর কাছে জমা দেয়া হয়েছে। তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।

এ ব্যাপারে রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আল ইমরান বলেন, ‘সরকারি বই বিক্রির অভিযোগ পেয়েছি। আজতো (শনিবার) সরকারি অফিস বন্ধ। আগামী দুদিনের মধ্যে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

সূত্র : ঢাকাটাইমস

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles