14.7 C
Toronto
শনিবার, সেপ্টেম্বর 30, 2023

অন্টারিওর বনে আগুনের সংখ্যা বেড়েছে

অন্টারিওর বনে আগুনের সংখ্যা বেড়েছে
<br >জবাবে প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড বলেন দাবানল নিয়ে বিরোধীদল রাজনীতি করায় তিনি হতাশ দাবানল মোকাবিলায় সরকার প্রস্তুত বিরোধীদলের জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে উদ্বেগের পাত্তা না দিয়েই এ মন্তব্য করেন তিনি

চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসে অন্টারিওতে বনভূমিতে আগুনের সংখ্যা গত বছরের একই সময়ের তুলনায় দ্বিগুন হয়েছে। প্রাদেশিক উপাত্ত অনুযায়ী, ২০২৩ সালে এখন পর্যন্ত বনভূমিতে ১৬৭টি আগুনের ঘটনা ঘটেছে। গত বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ৭ জুন পর্যন্ত এ সংখ্যা ছিল ৭৮টি।
দশ বছরের গড় আগুনের সংখ্যা ১৫৭টির চেয়েও সংখ্যাটি বেশি। প্রদেশের বেশিরভাগ অংশই রেস্ট্রিক্টেড ফায়ার জোনের মধ্যে অবস্থিত।

ন্যাচারাল রিসোর্সেস অ্যান্ড ফরেস্ট্রি মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বুধবার বিকাল পর্যন্ত সক্রিয় আগুন ছিল ৫৪টি। এর মধ্যে নিয়ন্ত্রণের বাইরে ছিল ২৯টি আগুন।

- Advertisement -

এসব অগ্নিকান্ড থেকে নির্গত ধোঁয়া প্রদেশের বাতাসের মানের ওপর মারাত্মক প্রভাব ফেলছে। এনভায়রনমেন্ট কানাডা একে উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ আখ্যা দিয়েছে।
আইনসভায় বক্তব্য দিতে গিয়ে নিউ ডেমোক্র্যাটিক পার্টি জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে সরকারকে প্রশ্নবাণে জর্জরিত করে। তারা বলে, এবারের গ্রীষ্ম সম্ভবত আমাদের প্রদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে মারাত্মক আগুনে মৌসুম।

জবাবে প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড বলেন, দাবানল নিয়ে বিরোধীদল রাজনীতি করায় তিনি হতাশ। দাবানল মোকাবিলায় সরকার প্রস্তুত। বিরোধীদলের জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে উদ্বেগের পাত্তা না দিয়েই এ মন্তব্য করেন তিনি।

ডগ ফোর্ড বলেন, আমাদের রয়েছে বিশ্বের সেরা ১৪২ রেঞ্জার ফায়ার ক্রু। তারা প্রদেশের বিভিন্ন স্থানে যেতে প্রস্তুত। ২৮টি এয়ারক্রাফটের একটি বহর আছে আমাদের, যারা এই আগুনের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। এই এয়ারক্রাফটগুলোর মধ্যে নয়টি রয়েছে হেভি ওয়াটার বোম্বার। বেশিরভাগ অগ্নিকান্ডেরই সূত্রপাত বজ্রপাত বা ক্যাম্পফায়ার। আমার প্রথম লক্ষ্য হচ্ছে অন্টারিওতে লোকজন ও কমিউনিটিগুলোকে নিরাপদ রাখা।
যদিও দাবানলের মৌসুম মোকাবিলার জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক কর্মী নেই বলে জানিয়েছে ফায়ার রেঞ্জারদের প্রতিনিধিত্বকারী একটি ইউনিয়ন। অন্টারিও পাবলিক সার্ভিস এমপ্লয়ীজ ইউনিয়নের (ওপিএসইইউ) প্রেসিডেন্ট জেপি হরনিক বলেন, এখানে নিয়োগ ও তাদের ধরে রাখা নিয়ে সমস্যা রয়েছে। গত কয়েক বছর ধরে ফায়ার রেঞ্জারসে সরকারের বিনিয়োগের ঘাটতি রয়েছে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles