-5.4 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪

সহপাঠীকে হত্যা করে নাম পাল্টে আত্মগোপন, ৩৩ বছর পর গ্রেপ্তার

সহপাঠীকে হত্যা করে নাম পাল্টে আত্মগোপন, ৩৩ বছর পর গ্রেপ্তার
গ্রেপ্তার মো শাহাবুদ্দিন

চট্টগ্রামে সহপাঠীকে হত্যার দায়ে যাবজ্জীবন সাজার এক আসামিকে ৩৩ বছর পর গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

বুধবার রাতে নগরের বায়েজিদ বোস্তামি থানার বিআরটিসি মোড় এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার মো. শাহাবুদ্দিন আনোয়ারা থানার শোলকাটা গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে।

- Advertisement -

র‌্যাব জানায়, আনোয়ারা উপজেলার শোলকাটা গ্রামের একটি মাদ্রাসায় পড়ালেখা করতেন সবুর ও মো. শাহাবুদ্দিন। ১৯৯০ সালের ২১ মার্চ মাদ্রাসার সামনেই দুইজনের মধ্যে ঝগড়া হয়। ঝগড়ার এক পর্যায়ে শাহাবুদ্দিন তার সহপাঠী মো. সবুরকে পেরেকযুক্ত কাঠের লাঠি দিয়ে মাথায় আঘাত করে। এতে গুরুতর আহত হন সবুর। স্থানীয় লোকজন তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় সবুরের বাবা বাদী হয়ে আনোয়ারা থানায় মামলা করেন।

ঘটনার পর এলাকা ছেড়ে আত্মগোপনে চলে যায় শাহাবুদ্দিন। ২০০৭ সালের ২৬ জুলাই আদালত শাহাবুদ্দিনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন।

র‌্যাব-৭ এর পতেঙ্গা ক্যাম্প কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মাহফুজুর রহমান বলেন, শাহাবুদ্দিন দীর্ঘ ৩৩ বছর নিজের পরিচয় গোপন করে বিভিন্ন স্থানে আত্মগোপনে ছিলেন। নাম পাল্টে আবু বক্কর সিদ্দিকী নামধারণ করেন। যার কারণে আসল নামে তাকে কেউ চিনত না। সবশেষ তিনি একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করতেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বায়েজিদের বিআরটিসি মোড় এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles