19.7 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০২৪

ভালোবাসা দিবসে স্ত্রীকে ‘সতীন উপহার’ স্বামীর!

ভালোবাসা দিবসে স্ত্রীকে ‘সতীন উপহার’ স্বামীর!
প্রতীকী ছবি

বিশ্বব্যাপী ১৪ ফেব্রুয়ারি ‘ভ্যালেন্টাইন্স ডে’। এই দিবস ঘিরে পৃথিবীজুড়ে বহু প্রেমিক-প্রেমিকা ও যুগলদের আয়োজনের কমতি থাকে না। তবে এসবের মধ্যেও কারও কারও জীবনে নেমে আসে বিষাদের সুর, সংসারে দেখা দেয় বিচ্ছেদ। তেমনি ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ঘটেছে এমন ঘটনা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ভালোবাসা দিবসের আগে স্বামীর বিরুদ্ধে পারিবারিক নির্যাতনের অভিযোগ করে পুলিশের দ্বারস্থ হলেন স্ত্রী। অভিযোগ, তাকে শারীরিক এবং মানসিকভাবে অত্যাচার করে ঘর ছাড়তে বাধ্য করেছেন স্বামী। তার পর নতুন বউ নিয়ে ঘরে ঢুকেছেন তিনি।

- Advertisement -

জানা যায়, পুরুলিয়ার বাঘমুন্ডি থানার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের বাসিন্দা জবুনা মণ্ডল। তিনি জানান, পরিতোষ মণ্ডলের সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছে ২০১৪ সালে। বিয়ের প্রথম প্রথম সব ঠিক ছিল। কিন্তু বিয়ের পাঁচ বছরের মধ্যে পর পর দু’টি কন্যাসন্তানের জন্ম দেওয়ায় তার উপর অত্যাচার শুরু করেন স্বামী এবং শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

জবুনার আরও অভিযোগ, স্বামী, শাশুড়ি এবং ননদ তার উপরে শারীরিক এবং মানসিক নির্যাতন করেন। গত কয়েক দিন ধরে অত্যাচারের পরিমাণ বাড়তে থাকে। বাপের বাড়ি থেকে লাখ খানেক টাকা আনতে জোর করা হত। এত টাকা কোথায় পাবেন? এ প্রশ্ন করলেই নাকি গত ৩১ জানুয়ারি মাঝরাতে তাকে বেদম মারধর করেন স্বামী এবং শ্বশুরবাড়ির লোকজন। এমনকি, প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়। ভয় পেয়ে ঝাড়খণ্ডে মামার বাড়িতে আশ্রয় নেন বধূ। সেখানেই তিনি খবর পান, স্বামী আবার একটি বিয়ে করেছেন।

এরপরেই গতকাল সোমবার বাঘমুন্ডি থানায় হাজির হন জবুনা। স্বামী এবং শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ সূত্রে খবর, নির্দিষ্ট ধারায় মামলা দায়ের করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে তারা।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles