-0.9 C
Toronto
শনিবার, জানুয়ারী ২৮, ২০২৩

‘হত্যার’ আগেও শারমিনকে ধর্ষণ করা হয়, ছিলেন অন্তঃসত্ত্বা

‘হত্যার’ আগেও শারমিনকে ধর্ষণ করা হয়, ছিলেন অন্তঃসত্ত্বা

মেয়েটির মেহেদি রাঙা হাতে লেখা বি প্লাস এস। নিথর দেহে পড়েছিল সরিষার ক্ষেতে। পাঁচদিন পর মেলে পরিচয়। শুধু তাই নয়; জানা গেল নেপথ্যের রোমহর্ষক ঘটনাও। ‘খুনের’ আগে করা হয় তাকে ধর্ষণ। অপরাধী কে? প্রেমিক নাকি অন্য কেউ বা কারা? কার হাত ধরে বাড়ি ছেড়ে দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে প্রাণ গেল মেয়েটির? এ প্রশ্নের উত্তর মেলেনি এখনো।

- Advertisement -

১৩ জানুয়ারি বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার কাথম বেরাগাড়ি গ্রামের এক সরিষার ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত তরুণীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তার শরীরে দৃশ্যমান কোনো আঘাতের চিহ্ন না পেলেও রহস্যের গন্ধ পায় পুলিশ। লাশ উদ্ধারের সময় তা বলেছিলেন নন্দীগ্রাম থানার ওসি। ময়নাতদন্ত শেষে হাসপাতালের মর্গে রাখা হয় তার লাশ।

অবশেষে পরিচয় পাওয়ার পর স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর করা করে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেন নন্দীগ্রাম থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন। এর আগে, বুধবার মেয়ের খোঁজে থানায় আসেন নূর নাহার। তিনি ফরিদপুরের সদরপুর থানার ভাসানচর এলাকার বাসিন্দা। তার মেয়ের নাম শারমিন আক্তার।

নূর নাহার বলেন, ২ জানুয়ারি থেকে নিখোঁজ ছিলেন শারমিন। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান পাওয়া যায়নি। ১০ জানুয়ারি সদরপুর থানায় এ ঘটনায় সাধারণ জিডি করা হয়। ১৫ জানুয়ারি আমরা জানতে পারি বগুড়ার নন্দীগ্রাম থানায় এক তরুণীর লাশ পাওয়া গেছে। ওই সময় পুলিশের কাছে শারমিনের ছবি পাঠিয়ে দেওয়া হয়। একই সঙ্গে আমাদের কাছেও লাশের ছবি পাঠায় নন্দীগ্রাম থানা পুলিশ। তখন দেখি লাশের ছবিটিই শারমিনের। দুই ছবিই মিলে যায়।

তিনি আরো বলেন, ভাসানচর নতুন বাজার এলাকায় স্থানীয় একটি স্কুলে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন শারমিন। সেখানে স্থানীয় এক ছেলের সঙ্গে তার প্রেম ছিল। এ কারণে তার স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দেওয়া হয়। এরপরও ওই ছেলেটার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখতেন শারমিন। শারমিনের প্রেমিকই তাকে বগুড়ায় এনে হত্যা করেছেন বলে আমরা ধারণ করছি।

নন্দীগ্রাম থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, শারমিন পাঁচ-ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। হত্যার আগে তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে তার মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে। এছাড়া লাশের ডিএনএ পরীক্ষা করা হবে। শারমিনের স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।

সূত্র : ডেইলি বাংলাদেশ

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles