3.1 C
Toronto
রবিবার, ফেব্রুয়ারী ৫, ২০২৩

চীনের জন্য নতুন ভ্রমণবিধি ভাইরাসের বিস্তার থামাতে পারবে না

চীনের জন্য নতুন ভ্রমণবিধি ভাইরাসের বিস্তার থামাতে পারবে না
ইউনিভার্সিটি অব টরন্টোর টিমার্টি ফ্যাকাল্টি অব মেডিসিনের সহযোগী অধ্যাপক ড আইজ্যাক বোগোশ বলেন এই নীতির উদ্দেশ্য কি সেটা পুরোপুরি পরিস্কার নয়

চীন থেকে আগত যাত্রীদের ক্ষেত্রে নেগেটিভ কোভিড-১৯ পরীক্ষার যে নিয়ম কানাডা চালু করেছে, নতুন ভ্যারিন্টের বিস্তার প্রতিরোধ তা যথেষ্ট নয় বলে মন্তব্য করেছেন বিশেষজ্ঞরা। ইউনিভার্সিটি অব টরন্টোর টিমার্ঠি ফ্যাকাল্টি অব মেডিসিনের সহকারি অধ্যাপক কেরি বাউম্যান একে নিছক রাজনৈতিক পদক্ষেপ বলে মন্তব্য করেছেন। এর সঙ্গে বিজ্ঞানের কোনো ভিত্তি নেই বলেও দাবি করেছেন তিনি।

বাউম্যান বলেন, সংক্রমণের শুরুর দিক নয় এটা। সুতরাং আমার মনে হয়, এটা রাজনৈতিক।

- Advertisement -

ফেডারেল সরকার জানিয়েছে, চীন, হংকং ও ম্যাকাও থেকে কেউ কানাডায় আসতে চাইলে তাদেরকে কোভিডমুক্তের প্রমাণ দেখাতে হবে। ৫ জানুয়ারি থেকে আকাশপথে ভ্রমণকারী দুই বছর ও তার বেশি বয়সী সবার ক্ষেত্রে এ নিয়ম প্রযোজ্য।

কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণ পদক্ষেপ থেকে চীনের সরে আসার কারণে দেশটিতে ব্যাপক হারে সংক্রমণ বেড়েছে। যদিও ওমিক্রমণের কোন ধরণটি সংক্রমণ ছড়াচ্ছে সে ব্যাপারে তেমন একটা জানা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন বায়োএথিকস অ্যান্ড গ্লোবাল হেলথ পড়ানো এই শিক্ষক।

তিনি বলেন, আমরা মনে হয় না এটা খুব ভালো ধারণা। উদ্যোগটি আমাদের সুরক্ষিত রাখবে বলে আমি মনে করি না। উপরে উপরে সরকার এটা দেখাতে চাইছে যে, তারা অনেক বেশি সপ্রতিভ ও সংবেদনশীল এবং জনগণকে রক্ষা করছে। কিন্তু এটা পরিস্কার যে, প্রবেশপথে স্ক্রিনিং আদৌ কার্যকর কোনো পদক্ষেপ নয়। একদিন বা কয়েক সপ্তাহ পরও লোকজন সংক্রমিত হতে পারে।

ইউনিভার্সিটি অব টরন্টোর টিমার্টি ফ্যাকাল্টি অব মেডিসিনের সহযোগী অধ্যাপক ড. আইজ্যাক বোগোশ বলেন, এই নীতির উদ্দেশ্য কি সেটা পুরোপুরি পরিস্কার নয়। কিন্তু এ ধরনের পদক্ষেপ কাজে দেবে না। অতীতেও আমরা দেখেছি যে, এ ধরনের পদক্ষেপ ভাইরাসের বিস্তার রোধে খুব বেশি কার্যকর হয়নি। তা সে বাইরে থাকা কোভিড হোক বা কানাডায় ভ্যারিয়েন্ট অব কনসার্নের হুমকিই হোক। চীন যদি কোভিড-১৯ উপাত্ত, ভ্যারিয়েন্ট, ভ্যাকসিন ও বিস্তারের ব্যাপারে স্বচ্ছ হতো তাহলেই বরং বেশি কাজে দিতো।

ইউনিভার্সিটি অব টরন্টোর ফ্যাকাল্টি অব ইনফরমেশনের সহকারি অধ্যাপক কলিন ফার্নেস বলেন, ভ্রমণে কোভিডমুক্ত প্রমাণ প্রদর্শন সংক্রান্ত পরিস্থিতিটা বেশ জটিল। এটা রাজনৈতিক যেমন, একইভাবে সামাজিক ও জনস্বাস্থ্য সম্পর্কিতও। এটাকে রাজনৈতিক হিসেবে দেখা যেতে পারে। দেখা যেতে পারে বর্ণবাদ হিসেবে। ভাইরাসের বিস্তার থামাতে অবশ্যই কাজে আসবে না এটা।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles