6 C
Toronto
বুধবার, ফেব্রুয়ারী ৮, ২০২৩

নিয়ম ভাঙলেন আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমন্ত্রী

নিয়ম ভাঙলেন আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমন্ত্রী
আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমন্ত্রী মেরি এনজি

নিয়ম ভেঙে এক বন্ধুকে কাজ দিয়েছেন আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমন্ত্রী মেরি এনজি। এ ঘটনা বিরোধী কনজার্ভেটিভ পার্টির হাতে সমালোচনার অস্ত্র তুলে দিয়েছে। তারা এখন বলছে, লিবারেল কেবিনেট মন্ত্রীদের নিয়ম ভাঙার ঘটনা এটাই প্রথম নয়। নিয়ম ভঙ্গের বিষয়টি ফেডারেল এথিকস কমিশনার নিশ্চিত করার পর ক্ষমা চেয়েছেন মেরি এনজি।

কনজার্ভেটিভ পার্টির সাবেক এথিকস ক্রিটিক ও এমপি জেমস বেজান গত মে মাসে এ সংক্রান্ত অভিযোগ দাখিল করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ফেডারেল এথিকস কমিশনার মারিও ডিওন তার প্রতিবেদন প্রকাশ করলেন।

- Advertisement -

এনজির কার্যালয় ২০২০ সালের বসন্তে পাবলিক রিলেশন ফার্ম পম্ম অ্যান্ড সার্কামস্ট্যান্সকে একটি কাজ দেয়। এর পরিমাণ মাত্র ১৭ হাজার ডলার হলেও এমপি বেজান এর মাধ্যমে স্বার্থের দ্বন্দ্ব আইন লঙ্ঘিত হয়েছে বকলে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। এক্ষেত্রে এনজি ও কোম্পানিটির প্রতিষ্ঠাতা আমান্দা আলভারোর মধ্যকার বিদ্যমান বন্ধুত্বের বিষয়টি তুলে ধরেন তিনি।

ডিওন তার প্রতিবেদনে বলেছেন, তিনি এনজি এবং আলভারো উভয়েরই স্বাক্ষাৎকার নিয়েছেন এবং ২০ বছর ধরে তারা একে অন্যকে চেনেন, যাকে তারা বন্ধুত্ব হিসেবে উল্লেখ করেছেন। স্বার্থের দ্বন্দ্ব আইনের অধীনেও তাদের সম্পর্ককে বন্ধুত্ব হিসিবে নিধারণ করেন ডিওন।

এই বন্ধুত্বের সুবাদেই এনজির কার্যালয় আলভারোর প্রতিষ্ঠানকে ২০২০ সালের মার্চে কাজটি দেয়। ওই সময় এনজি অনানুষ্ঠানিক এক টেলিফোন আলাপে তার বন্ধুর কাছে তার উদ্বেগের কথা প্রকাশ করেন এবং তিনি যে কানাডিয়ান ও ব্যবসাকে সর্বোত্তম সেবা প্রদানে প্রস্তুতি নিতে চান সে কথা উল্লেখ করেন।
ডিওন বলেন, তবে কাজের বিষয়টি তারা কেউই একে অপরের সঙ্গে আলোচনা করেননি। এনজির বক্তব্য অনুযায়ী, পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করেছেন তার চিফ অব স্টাফ, যিনি এই বন্ধুত্বের বিষয়ে অবগত ছিলেন। এনজি ও আলভারোর প্রদত্ত নথি অনুযায়ী, আন্তর্জাতিক মন্ত্রীর কার্যাদেশ সংক্রান্ত পরবর্তী আলোচনায় জড়ানোটা উচিত হয়নি। মন্ত্রী এই প্রক্রিয়া থেকে নিজেকে দূরে রাখতে ব্যর্থ হওয়ার মধ্য দিয়ে আইনের একটি ধারা লঙ্ঘন করেছেন।

তদন্তকালে এনজি নিজেও বিষয়টি স্বীকার করেছেন। এনজি এও জানান যে, ২০১৯ সালেও প্রতিষ্ঠানটি ৫ হাজার ৮৪০ ডলারের একটি কার্যাদেশ পেয়েছিল।
হাউস অব কমন্সে মঙ্গলবার প্রশ্নোত্তর পর্বে এনজি বলেন, এই পূর্ণ দায় আমি নিচ্ছি এবং কার্যাদেশ সংক্রান্ত কার্যক্রমের সময় প্রক্রিয়া টিকে নিজেকে দূরে রাখা উচিত ছিল তার।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles