6 C
Toronto
বুধবার, ফেব্রুয়ারী ৮, ২০২৩

বিয়ের জন্য পাত্রী চেয়ে যুবকদের মিছিল

বিয়ের জন্য পাত্রী চেয়ে যুবকদের মিছিল
প্রতীকী ছবি

কয়েক বছর ধরে ভারতের মহারাষ্ট্রে কমেছে নারীর সংখ্যা। যার ফলে, রাজ্যটিতে বিবাহযোগ্য পাত্র থাকলেও দেখা নেই বিবাহযোগ্যা পাত্রীদের। নারী পুরুষের অনুপাতেও দেখা দিয়েছে বিস্তর ফারাক। তাই বিয়ের জন্য মেয়ে খুঁজে দেওয়ার দাবি নিয়ে সরাসরি জেলা প্রশাসকের (ডিসি) দরবারে হাজির হয় একদল অবিবাহিত যুবক। রীতিমতো শোভাযাত্রা করে বরের বেশে সরকারি দপ্তরে নিজেদের দাবি নিয়ে হাজির হয়েছিলেন তারা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়, সম্প্রতি মহারাষ্ট্রের সোলাপুরে এ ঘটনা ঘটেছে। সেখানকার কিছু অবিবাহিত যুবক সম্মিলিত ভাবে গঠন করেছেন ‘ব্রাইডগ্রুম মোর্চা’ নামের একটি দল। সেই দলের পক্ষ থেকেই সোলাপুরের ডিসির কাছে একটি চিঠি জমা দেওয়া হয়েছে। সেখানে দাবি করা হয়েছে, মহারাষ্ট্রে ব্যাপক হারে কমে গিয়েছে নারীর সংখ্যা।

- Advertisement -

মূলত বিবাহযোগ্যা মেয়ে খুঁজে পাওয়া দুষ্কর হয়ে দাঁড়িয়েছে মহারাষ্ট্রে। এ বিষয়ে ওই সংগঠনের অভিযোগ, সন্তান জন্মের আগে গর্ভস্থ ভ্রুণের প্রকার জেনে নেওয়ার দরুন এমন বৈষম্য তৈরি হয়েছে। তারা জানিয়েছেন, মহারাষ্ট্রে প্রতি ১০০০ জন পুরুষের অনুপাতে নারীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৮৯ জন। আর এমন ভারসাম্যহীনতার জন্য সরকারের ব্যর্থতাকেই দায়ী করেছেন তারা।

তাদের অভিযোগ, রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে এখনও অন্যায় ভাবে কন্যাভ্রুণ হত্যা করা হয়। সরকার তা কোনোভাবেই বন্ধ করতে পারেনি। সেই কারণেই রাজ্যে নারী-পুরুষের সংখ্যায় ভারসাম্য বজায় নেই। পাশাপাশি এই মিছিলে যারা অংশ নিয়েছিলেন, তাদের বিয়ের জন্য মেয়ে খুঁজে দেওয়ার দাবিও জানানো হয়েছে ডিসির কাছে।

তবে এমন গুরুতর বিষয় নিয়ে অভিযোগ করতে যাওয়ার সময় বেশ নাটকীয় পদ্ধতি অবলম্বন করেছিল ওই যুবকের দল। ওই দিন তারা প্রত্যেকেই বিয়ের পোশাকে সেজে সরকারি দপ্তরে গিয়েছিলেন। সঙ্গে ছিল শোভাযাত্রাও। তাদের মতে এমনভাবে যাওয়ার কারণেই তারা সবার নজর পড়েছেন। তাই আপাতদৃষ্টিতে তাদের নিয়ে সকলে ঠাট্টা করলেও এতে তাদের আসল উদ্দেশ্য বেশ খানিকটা সফল হয়েছে। এবার সরকারের তরফে তাদের দাবি নিয়ে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয় কি না, সে দিকেই তাকিয়ে রয়েছেন তারা।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles