4.1 C
Toronto
রবিবার, ফেব্রুয়ারী ৫, ২০২৩

ফরেন এজেন্ট রেজিস্ট্রি নিয়ে জনমত নিচ্ছে ফেডারেল সরকার

ফরেন এজেন্ট রেজিস্ট্রি নিয়ে জনমত নিচ্ছে ফেডারেল সরকার
জননিরাপত্তা মন্ত্রী মার্কো মেন্ডিসিনো

কানাডার ওপর বাইরের হস্তক্ষেপ বন্ধে ফরেন এজেন্ট রেজিস্ট্রি তৈরির বিষয়ে জনমত গ্রহণের প্রস্তুতি নিচ্ছে ফেডারেল সরকার। জননিরাপত্তা মন্ত্রী মার্কো মেন্ডিসিনো এ কথা বলেছেন।

গুরুত্বপূর্ণ মিত্র যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়ার মতো কানাডারও ফরেন এজেন্ট রেজিস্ট্রি তৈরি করা উচিত কিনা সে ব্যাপারে বিশেষজ্ঞ ও বৃহত্তর জনগণের মতামত নেবে লিবারেলরা। এই জনগণের মধ্যে আছে ক্ষতিগ্রস্ত কমিউনিটির সদস্যরাও।

- Advertisement -

সরকার এটা স্বীকার করেছে যে, বিদেশি সরকার ও বিভিন্ন সংস্থা কানাডার রাজনীতি, সরকারি ও গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় নিয়মিতভাবে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করছে এবং সেটা দৃশ্যমান। এমনকি বৈধ পথে কূটনৈতিক চ্যানেলেও সেটা করছে তারা।

অন্যদিকে কিছু দেশ বিদেশি রাজনৈতিক লক্ষ্য সাধনে হস্তক্ষেপ করছে। এর অংশ হিসেবে তারা হয়তো পক্ষে কাজ করার জন্য লোক নিয়োগ দিয়ে থাকতে পারে। এ ধরনের লোকদের সরকারের খাতায় আনুষ্ঠানিক নিবন্ধন বিষয়টিতে স্বচ্ছতা আনবে। নিয়ম-কানুন পরিপালনে ব্যর্থ হলে জরিমানা এমনকি কারাদ-েরও সুযোগ তৈরি হবে।

মেন্ডিসিনো এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ঘটনা হচ্ছে বিদেশি হস্তক্ষেপ ক্রমেই জটিল হয়ে উঠছে। একটা প্রস্তাব নিয়ে আমরা সতর্কতার সঙ্গে ভাবছি এবং তা হলো ফরেন এজেন্ট রেজিস্ট্রি তৈরি। শিগগিরই এ ব্যাপারে আমরা বিস্তারিত জানাতে পারবো বলে আশা করছি। কিন্তু আমরা বিষয়টি নিয়ে ভালো একটা পরামর্শের জন্য অপেক্ষা করে আছি।

এখন পর্যন্ত কোনো তারিখ নির্ধারিত না হলেও সামনের সপ্তাহে জনমত সংগ্রহ শুরু হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ফরেন ইনফ্লুয়েন্স রেজিস্ট্রেশনের তৈরির লক্ষ্যে যুক্তরাজ্য সম্প্রতি একটি আইন পাশ করেছে। অস্ট্রেলিয়া তাদের ফরেন ইনফ্লুয়েন্স ট্রান্সপারেন্সি স্কিম অ্যাক্ট চালু করেছে চার বছর আগে। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রে ১৯৩৮ সাল থেকেই ফরেন এজেন্ট রেজিস্ট্রি অ্যাক্ট বলবৎ রয়েছে।

কানাডিয়ান সিকিউরিটি ইন্টেলিজেন্স সার্ভিস গত বছর এই বলে সতর্ক করে দিয়েছিল যে, কানাডার বিরুদ্ধে বিদেশি হস্তক্ষেপ কোনো কোনো ক্ষেত্রে বাড়ছে। ফেডারেল কর্মকর্তারা দীর্ঘদিন ধরেই বলে আসছেন যে, কানাডা চীন ও রাশিয়ার মতো দেশের লক্ষ্যবস্তুতে রয়েছে। এর মধ্য দিয়ে তারা তাদের রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও নিরাপত্তা স্বার্থ তুলে আনতে চায়।

This article was written by Sohely Ahmed Sweety as part of the LJI.

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles