4.1 C
Toronto
রবিবার, ফেব্রুয়ারী ৫, ২০২৩

কারাগারে যেভাবে সময় কাটছে ফখরুল-আব্বাসের

কারাগারে যেভাবে সময় কাটছে ফখরুল-আব্বাসের
<br >মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও মির্জা আব্বাস

কারাগারে বই পড়ে সময় কাটছে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের। আজ বুধবার সকালে কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে দুই নেতার সঙ্গে তাদের সহধর্মিনীরা সাক্ষাতের পর তারা এ তথ্য জানান।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের স্ত্রী রাহাত আরা বেগম বলেন, আজ সশরীরে সাক্ষাৎ করেছি। কিছু বই আগেই পাঠিয়ে দিয়েছিলাম।

- Advertisement -

সেই বই এখন কারাগারে তার প্রতিদিনের সঙ্গী। তিনি একজন শিক্ষক মানুষ। বইপড়া তার প্রতিদিনের অভ্যাস। বাসায়ও প্রতিদিন কিছু সময় রিডিং রুমে বই-ম্যাগাজিন পড়েন।

শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে তিনি বলেন, শরীর মোটামুটি ভালো আছে। তবে মনোবল দৃঢ়। এমনিতে তার অসুস্থতা আছেই। দোয়া করবেন। কিছু ওষুধপত্রও দেওয়া হয়েছে বলে জানান রাহাত আরা।

তিনি আরো জানান, গত কয়েকদিন কারাগারে তার কষ্ট করতে হয়েছে। সোমবার রাতে ডিভিশন কক্ষ দেওয়া হয়।

এদিকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের সহধর্মিনী আফরোজা আব্বাসও বুধবার সকালে স্বামীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। তিনি বলেন, উনার শরীরটা একেবারেই ভালো না। গত কয়েকদিন কঠিন কষ্টের মধ্যে তাকে দিনযাপন করতে হয়েছে। প্রথম দিন থেকে তিনদিন মহাসচিব এবং তাকে নর্মাল কয়েদীদের সাথে ফ্লোরে কম্বল বিছিয়ে ঘুমাতে হয়েছে। গতকাল রিট করার পর তাদের ডিভিশন দেওয়া হয়। দেশের শীর্ষ রাজনীতিবিদের প্রতি সরকারের এ রকম আচরণে তাদের চরিত্র প্রকাশ পায়।

আফরোজা আব্বাস জানান, আজকে রাজনৈতিক ও মেডিক্যাল সাইয়েন্সের কিছু বইপত্র এবং কোরআন শরীফ দিয়ে এসেছি। ওষুধপত্রও দেওয়া হয়েছে। শারীরিকভাবে খুব একটা ভালো না হলেও মানসিক শক্তি ও মনোবল দৃঢ় আছে। নেতাকর্মীদের খোঁজ-খবরও নিয়েছেন তিনি।

জানা গেছে, তিনদিন ডিভিশন না পাওয়ায় রবিবার কারাগারের বাথরুমে পড়ে গিয়ে গোড়ালিতে ব্যথা পেয়েছেন মির্জা আব্বাস।

গত শুক্রবার ভোর রাতে তিনটার দিকে গোয়েন্দা পুলিশ উত্তরার বাসা থেকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও শাহজাহারপুরের বাসা থেকে মির্জা আব্বাসকে তুলে নিয়ে যায়। পরদিন সন্ধ্যায় তাদেরকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles