-2.2 C
Toronto
সোমবার, জানুয়ারী ৩০, ২০২৩

স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে যুবকের সঙ্গে হোটেলে উঠলেন ছাত্রী, মিলল লাশ

স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে যুবকের সঙ্গে হোটেলে উঠলেন ছাত্রী, মিলল লাশ
ছবি সংগৃহীত

কুষ্টিয়া শহরের মজমপুর এলাকায় একটি আবাসিক হোটেলে শয্যা বিশ্বাস (১৮) নামে এক কলেজছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে রাতুল আবাসিক হোটেলে এ ঘটনা ঘটে। স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে এক যুবকের সঙ্গে হোটেলে ওঠেন ওই কলেজছাত্রী।

এ ঘটনায় পুলিশ সৌরভ সরকার ওরফে জয় নামে এক যুবককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়েছে। সৌরভ টাঙ্গাইল জেলার বাসিন্দা। তিনি ঢাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন।

- Advertisement -

আর শয্যা বিশ্বাস কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলার জানিপুর ইউনিয়নের ঈশ্বরদী গ্রামের উদায় বিশ্বাসের মেয়ে এবং খোকসা সরকারি ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী ছিলেন।

কুষ্টিয়া মডেল থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত রোববার দুপুরে কুষ্টিয়া শহরের মজমপুর এলাকার রাতুল আবাসিক হোটেলে যান সৌরভ ও শয্যা। সেখানে দুজন স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে একটি কক্ষে ওঠেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে হঠাৎ করেই শয্যা অসুস্থতা অনুভব করলে তাকে দ্রুত কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়। বুধবার দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ।

রাতুল আবাসিক হোটেলের ব্যবস্থাপক রিপন বলেন, রোববার দুপুরে তারা দুজন স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে হোটেলে উঠেছিলেন। তারা হোটেলেই অবস্থান করছিলেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে ওই তরুণী অসুস্থ হলে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

শয্যার বাবা উদায় বিশ্বাস বলেন, রোববার সকালে শয্যা কলেজে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়। পরে দুপুর গড়িয়ে সন্ধ্যা হলে আত্মীয়স্বজন ও প্রতিবেশীদের বাড়িতে খোঁজ করেও পাননি। মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে জানতে পারেন মেয়ে মারা গেছে।

তিনি অভিযোগ করেন, এটি স্বাভাবিক মৃত্যু নয়, তাকে হত্যা করা হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা করবেন বলে তিনি জানান।

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, ওই তরুণী হাসপাতালে আসার আগেই মারা গেছেন।

কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হোসেন খান বলেন, আবাসিক হোটেলে ওই কলেজছাত্রীর মৃত্যুর ঘটনা শুনে পুলিশ সেখানে যায়। তবে তার মৃত্যুর সঠিক কোনো কারণ জানা যায়নি। এজন্য ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। এ ঘটনায় সৌরভ নামে এক যুবককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

ওই যুবকের বরাত দিয়ে ওসি আরও জানান, তারা দুজন স্বামী-স্ত্রী বলে জানিয়েছেন। তবে এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles