-5.3 C
Toronto
বুধবার, ফেব্রুয়ারী ১, ২০২৩

ক্রোয়েশিয়ার সেই নারী প্রেসিডেন্ট এখন কোথায়?

ক্রোয়েশিয়ার সেই নারী প্রেসিডেন্ট এখন কোথায়?
ছবি সংগৃহীত

কাতার বিশ্বকাপে সেমিফাইনালের মঞ্চে পা রেখেছে ক্রোয়েশিয়া। চার বছর আগে রাশিয়া বিশ্বকাপেও যারা ফাইনাল খেলেছিল।

সেবার লুকা মদ্রিচদের অসাধারণ পারফরম্যান্স নিয়ে আলোচনা তো ছিলই। সেই সঙ্গে ক্রোয়েশিয়ার তখনকার প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা গ্রাবার-কিতারোবিচও নজর কেড়েছিলেন সবার।

- Advertisement -

কাতার বিশ্বকাপেও ক্রোয়াট খেলোয়াড়রা যখন দারুণ গতিতে এগোচ্ছে, তখন সেই গ্রাবার-কিতারোবিচ কোথায়?

গ্রাবার-কিতারোবিচ ক্রোয়েশিয়ার ইতিহাসের প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট। ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারিতে দায়িত্ব নিয়েছিলেন। ২০২০ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ছিলেন এই পদে।

রাশিয়া বিশ্বকাপে তো ক্রোয়েশিয়ার ‘দ্বাদশ খেলোয়াড়’ বলা হচ্ছিল তাকে। কোনো ষোড়শী বা তরুণী যেমন গ্যালারিতে প্রিয় দল ও খেলোয়াড়কে উৎসাহ জোগান, তিনিও ঠিক সেভাবেই উৎসাহ দিয়েছেন দলকে।

সেবার ক্রোয়েশিয়া কোয়ার্টার ফাইনালে রাশিয়াকে হারানোর পর গ্রাবার-কিতারোবিচ খেলোয়াড়দের ড্রেসিংরুমেও চলে যান। নেচে-গেয়ে উল্লাস করেছেন খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফদের সঙ্গে।

ফাইনালে পুরস্কার বিতরণী মঞ্চেও ছিলেন। সেদিন গোল্ডেন বল জেতা মদ্রিচকে অনেকক্ষন জড়িয়ে ধরেছিলেন। সেই ছবিগুলো এখনও অনেকের স্মৃতিতে তাজা হয়ে আছে।

রাশিয়া বিশ্বকাপে নিজের সৌন্দর্য ও ফুটবলের প্রতি অনুরাগ দিয়ে সবার মন জয় করেছিলেন গ্রাবার-কিতারোবিচ। এখন আর ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট না হলেও ফুটবলের প্রতি তার ভালোবাসায় ছেদ পড়েনি। দলের খেলা দেখতে কাতারেও গিয়েছেন তিনি।

বর্তমানে ৫৪ বছর বয়সী গ্রাবার-কিতারোবিচ তার অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে কাতার বিশ্বকাপের অনেক ছবি পোস্ট করেছেন। যেগুলো বলছে- গ্যালারিতে বসে খেলা দেখছেন, মাঠের বাইরেও আনন্দ উদযাপন করছেন তিনি। মেটাচ্ছেন ভক্তদের সেলফির আবদার।

২৭ নভেম্বরে ক্রোয়েশিয়া ও কানাডার মধ্যকার ম্যাচ মাঠে বসে উপভোগ করেন গ্রাবার-কিতারোবিচ। এ সময় ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনোর সঙ্গেও সাক্ষাৎ হয় তার।

সব ম্যাচেই তিনি মাঠে থাকছেন কিনা সেটা স্পষ্ট নয়। তবে দলের প্রতি তার সমর্থন ঠিকই থাকছে। জাপানকে হারিয়ে ক্রোয়োশিয়া কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করার পর তিনি ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে লিখেন, ‘দুর্দান্ত, ঠিক যেন আগুন। দেখা হবে ফাইনালে।’

ব্রাজিলের বিপক্ষে ম্যাচেও হয়তো গ্যালারিতে ছিলেন না তিনি। তবে নেইমারদের হারিয়ে দল সেমিফাইনাল নিশ্চিত করার পর ফেসবুকে পোস্ট করেন তিনি। নিজের একটি পোস্ট করেন। তার গলায় ছিল ক্রোয়েশিয়ার পতাকা। ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘এক হৃদয়, একটাই স্বপ্ন। শেষ পর্যন্ত যাওয়া যাক।’

ক্রোয়েশিয়া চ্যাম্পিয়ন হলে একজন কোলিন্দা গ্রাবার-কিতারোবিচও তো চ্যাম্পিয়ন হবেন!

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles