6 C
Toronto
বুধবার, ফেব্রুয়ারী ৮, ২০২৩

লিভার ড্যামেজের লক্ষণ ও প্রতিকার জেনে নিন

লিভার ড্যামেজের লক্ষণ ও প্রতিকার জেনে নিন
লিভার বা যকৃৎ ছবি সংগৃহীত

লিভার বা যকৃৎ হল একটি আবশ্যিক প্রত্যঙ্গ, যা পাচকনালী থেকে আসা রক্তকে পরিস্রুত করে পুরো শরীরে ছড়িয়ে দেয়। এই অঙ্গের কোনও সমস্যা হলে শরীরে তার বিরাট প্রভাব দেখা যায়।

লিভারের রোগ সম্পর্কে বেশিরভাগ মানুষের তেমন কোনও সচেনতনতা নেই। তাই লিভার ড্যামেজের লক্ষণ অনেকে জানেন না। তাই সতর্ক হওয়া প্রয়োজন।

- Advertisement -

এই প্রসঙ্গে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এই সময়কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে কলকাতার বিশিষ্ট মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. আশিস মিত্র বলেছেন, বিভিন্ন ভাইরাসের জন্য লিভার ড্যামেজ হতে পারে। এক্ষেত্রে হেপাটাইটিস ই, বি, সি, এ থাকতে পারে। এ ছাড়া মদ্যপান, বিভিন্ন ওষুধ খাওয়ার কারণেও লিভারে সমস্যা হয়। আবার ফ্যাটি লিভার রোগটিও এই অসুখের কারণ হতে পারে।

লিভার ড্যামেজের লক্ষণ

প্রথম দিকে তেমন একটা গুরুতর লক্ষণ দেখা যায় না। রোগীর খিদে না পাওয়া, খাবার হজমে সমস্যা, ওজন কমে যাওয়া এই ৩ উপসর্গ সামনে আসলে চিকিৎসকের কাছে যেতে হবে। কারণ এটা মহা সমস্যার অসুখ। এছাড়া রোগ কিছুটা বাড়লে- পা, পেট, মুখ ফোলে, পেটে ব্যথা হয়। মূলত পেটের ডানদিকে চিনচিনে ব্যথা হয়ে থাকে।

কাদের ঝুঁকি বেশি

যেকোনো মানুষের এই অসুখ হতে পারে। তবে দেখা গেছে কিছু মানুষের এই রোগের আশঙ্কা থাকে খুবই বেশি। এমন ক্ষেত্রে- বাড়িতে আগে কারও এই অসুখ থাকলে, ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে না থাকলে, কোলেস্টেরল বেশি থাকলে, ওজন বেশি থাকলে, মদ্যপানের অভ্যাস থাকলে ইত্যাদি ক্ষেত্রে এই রোগ বেশি করে দেখা যায়। তাই এই বিষয়গুলো নিয়ে অবশ্যই সতর্ক হতে হবে।

কী ভাবে রোগ নির্ণয় করা হয়

অনায়াসে রোগ নির্ণয় করা যায় সহজ কিছু পরীক্ষার মাধ্যমে। তবে সবার প্রথমে চিকিৎসকের কাছে আসতে হবে। সেক্ষেত্রে ডাক্তার রোগীকে দিতে পারেন লিভার ফাংশন টেস্ট। এই টেস্ট খুব সহজেই লিভারের সমস্যার কথা বলে দেয়। এ ছাড়া প্রয়োজন হলে করা যেতে পারে ইউএসজি অব আপার অ্যাবডোমেন। এই দুটি টেস্ট প্রাথমিকভাবে রোগ সম্পর্কে জানান দেয়। তারপর আরও পরীক্ষা করা হয় প্রয়োজন মতো।

চিকিৎসা

প্রথমে দেখতে হবে কী রোগ হয়েছে। তারপর হবে চিকিৎসা। এক্ষেত্রে ভাইরাল হেপাটাইটিসের মধ্যে এ, ই-তে আক্রান্ত হলে রোগ এমনিই কমে যায়। তবে হেপাটাইটিস বি, সি-এর ক্ষেত্রে চিকিৎসা রয়েছে। সেই অনুযায়ী চলতে হয়। এ ছাড়া কোনও ওষুধ থেকে লিভার ড্যামেজ হলে সেই দিকটাও দেখতে হয়। এ ছাড়া রোগীকে কিছু এমন ওষুধও প্রয়োজনে দেয়া যেতে পারে যাতে দ্রুত ওজন কমে। এই বিষয়গুলো একজন চিকিৎসক ঠিক করে দেন।

কী কী ছাড়তে হবে

লিভারের রোগ থাকলে মদ্যপান ছাড়তে হবে, বাইরের পানি কিছুদিন পান বন্ধ করতে হবে, ঝাল, মশলা, তেল কম খেতে হবে। পাশাপাশি চেষ্টা করতে হবে যতটা সম্ভব ব্যায়াম করার। এভাবেই ভালো থাকতে পারবেন। লিভার ড্যামেজ আটকে যাবে।

(প্রতিবেদনটি সচেতনতার উদ্দেশ্যে লেখা হয়েছে। কোনও সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।)

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles