6 C
Toronto
বুধবার, ফেব্রুয়ারী ৮, ২০২৩

প্রেমিক ব্যস্ত বিশ্বকাপে, সমুদ্রসৈকতে আগুন ঝরালেন বান্ধবী

প্রেমিক ব্যস্ত বিশ্বকাপে, সমুদ্রসৈকতে আগুন ঝরালেন বান্ধবী
শার্লট রাসেল

কাতার বিশ্বকাপেও শিরোনামে ওয়েলসের স্ট্রাইকার কিফার মুরের বান্ধবী। ইংল্যান্ডের সমুদ্রসৈকতে তার ফটোশুটের ছবিতে সয়লাব হয়েছে ব্রিটিশ ট্যাবলয়েডগুলো।

পেশায় মডেল শার্লট রাসেলকে নিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমে আজকাল কম মাতামাতি হচ্ছে না। সৌজন্যে, ইংল্যান্ডের স্যান্ডব্যাঙ্কস এলাকার সমুদ্র উপকূলে তার আগুন ছড়ানো একাধিক ছবি। গত মাসে একটি ফটোশুটে ক্যামেরাবন্দি হন শার্লট। তার ছবিগুলো ইনস্টাগ্রাম-সহ নেটমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তেই হামলে পড়েন অনুরাগীরা।

- Advertisement -

অনুরাগীরা মন্তব্য, স্যান্ডব্যাঙ্কসের সমুদের গায়ে মিশে রয়েছে শার্লটের মোহময়ী আবেদন। তিনি নিজেও ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, ‘দারুণ টিমের সঙ্গে সংস অব আ সাইরেন শুট হলো। শুটের ছবিগুলো খুব শৈল্পিক হয়েছে।’ সঙ্গে একটি হৃদয়ের ‘ইমোজি’ জুড়ে দেন তিনি। ছবিগুলোতে দেখা গেছে, ফ্যাকাসে রঙা ঢেউয়ের সামনে শার্লটের উদ্দাম ভঙ্গিমা। কোনোটায় আবার সাদা গাউনের মায়া সামলে নিজেকে বালুকাবেলায় ছড়িয়ে দিয়েছেন।

কোনোটিতে তিনি রহস্যময়ী। কোনোটিতে আবার আত্মমগ্ন।

ফটোশুটের প্রশংসা পেলেও আজকাল বোধ হয় সে সবে মন নেই শার্লটের। প্রেমিকের পা যে কাতারের মাঠে রয়েছে। বিশ্বকাপের উন্মাদনায় তিনিও যে মেতে রয়েছেন! তেমনই দাবি ব্রিটিশ ট্যাবলয়েডগুলোর। যদিও কাতারের মাঠে শার্লটের প্রেমিকের শুরুটা বিশেষ সুবিধার হয়নি। গ্রুপ ‘বি’র প্রথম দুটি ম্যাচের পরেও জয় পায়নি ওয়েলস। প্রথম ম্যাচে গ্যারেথ বেলের ওয়েলস শুরুতেই পিছিয়ে পড়ে আমেরিকার কাছে। সে ম্যাচে শার্লটের প্রেমিক মুর নেমেছিলেন বিরতির পরে। ইরানের বিরুদ্ধে পরের ম্যাচেও অঘটন। ইরানের কাছে জোড়া গোলে হেরে যান মুররা।

বিশ্বকাপের মৌসুমে ওয়েলসের তারকা ফুটবলারের বান্ধবীকে নিয়ে পাতার পর পাতা খরচ করছে ব্রিটিশ ট্যাবলয়েডগুলো। তার সেই মাসখানেক আগেকার ছবিগুলো তুলে ধরে প্রতিবেদনও ছাপায় তারা। মুরের সঙ্গে শার্লটের সম্পর্ক যদিও আজকের নয়। তারা ৮ বছর পরস্পরের সঙ্গে কাটিয়ে ফেলেছেন। এর আগেও যুগলের ছবি ফলাও করে প্রকাশ করে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে বোর্নমাউথের হয়ে খেলেন মুর। ইংল্যান্ডে জন্ম হলেও ওয়েলসের জাতীয় দলের জার্সি গায়ে চাপিয়েছেন তিনি। শার্লটের সঙ্গে এত দিনের সম্পর্কের ফাঁকেই তাকে বিয়ে করার কথাও বলেছেন।

ইপিএলে গত মরসুমের পরই শার্লটকে বিয়ের প্রস্তাব দেন মুর। চলতি বছরের মে-তে সেই বিশেষ দিনটির কথা ফলাও করে অনুরাগীদের জানিয়েছিলেন শার্লট।

মুর যে তাঁর প্রেমিকের পাশাপাশি প্রিয় বন্ধুও বটে। সে কথাও ইনস্টাগ্রামে লিখেছিলেন শার্লট। তাঁর কথায়, ‘‘১২/৫/২২ (এর পর একটি আংটির ইমোজি) যে দিন আমার প্রিয় বন্ধু তাঁকে বিয়ের কথা বলল।’’ হৃদয়-আঁকা চিহ্ন দিয়ে তিনি নিজের সম্পর্কে লিখেছিলেন, ‘‘দুনিয়ার সবচেয়ে সুখী মেয়ে!’’

হবু জীবনসঙ্গী হিসাবে শার্লটকে নিয়ে উচ্ছ্বসিত মুরও। নিজের ইনস্টাগ্রামে তিনি লিখেছেন, ‘‘(শার্লট) অতুলনীয় মেয়ে আর ওঁকে বিয়ে করার জন্য তর সইছে না।’’

২৮ বছরের এই মডেলের সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে লুকোছাপা নেই মুরের। সোশাল মিডিয়ার বহু পোস্টেই শার্লটের সঙ্গে তাকে একসঙ্গে দেখা গেছে। তবে আজকাল শার্লট ও তার অনুরাগীদের একটাই প্রার্থনা- কাতারের মাটিতে ওয়েলসের জয়।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles