7.9 C
Toronto
শনিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২২

আলোচনায় আসার ইচ্ছে হলে আমার কাছে আসেন, উপস্থাপিকাকে জয়

আলোচনায় আসার ইচ্ছে হলে আমার কাছে আসেন, উপস্থাপিকাকে জয়
শাহরিয়ার নাজিম জয় ও ইসরাত পায়েল

‘মিসেস ইউনিভার্স ২০২২’র গ্র্যান্ড ফিনালের মঞ্চে জনপ্রিয় অভিনেতা মীর সাব্বিরের আঞ্চলিক ভাষা ঝড় তুলেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। তার কথায় বুলিংয়ের অভিযোগ এনেছেন উপস্থাপিকা ইসরাত পায়েল। এ অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল বুধবার মুখ খুলতে বাধ্য হয়েছেন মীর সাব্বির।

মীর সাব্বিরের মতো একজন গুণী অভিনেতার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ তোলায় খেপেছেন অভিনেতা, নির্মাতা ও উপস্থাপক শাহরিয়ার নাজিম জয়। এ বিষয়ে কথা বলেছেন তিনিও।

- Advertisement -

ফেসবুকে দীর্ঘ এক স্ট্যাটাসে তিনি বলেছেন, ‘অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে এবং কিছুটা দাবি খাটিয়ে অভিনেতা মীর সাব্বিরকে মঞ্চে কিছুটা মজা করার জন্য দাঁড় করালেন উপস্থাপিকা। বরিশালের ভাষায় মীর সাব্বির মজাও করলেন। তারপর সব শেষ। সবাই আনন্দ পেয়ে ঘরে গেল।’

তিনি আরও লিখেছেন, ‘উপস্থাপিকা বা কোনো মাধ্যম এই অনুষ্ঠান থেকে একটি ভাইরাল টপিক বানানোর জন্য মীর সাব্বিরের মজাটাকে পুঁজি করল। সারাদিন মীর সাব্বিরকে নিয়ে ট্রল। উপস্থাপিকা মীর সাব্বিরের বিরুদ্ধে কিছুটা অশালীনভাবেই বিভিন্ন মাধ্যমে বক্তব্য দিয়েই যাচ্ছেন। আপনার যদি এতই আলোচনায় আসতে ইচ্ছে হয় আপনি আমার কাছে আসেন। এই বিষয়ে মীর সাব্বির আপনাকে অনেক দূর নিতে পারবে না। মাত্র দুই-তিন দিন। আমার অনুষ্ঠান আপনাকে এক বছর আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রাখবে।’

সতর্ক করে এই অভিনেতা ও উপস্থাপক লিখেছেন, ‘নারীর পোশাক এবং নারীকে সম্মান করা এই বিষয়ে মীর সাব্বিরসহ আমাদের জেনারেশনের সকল অভিনেতাদের সম্পূর্ণ শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসা আছে। মীর সাব্বিরকে নিয়ে ট্রল করেন অসুবিধা নাই। ভুলেও তাকে অসম্মান করার চেষ্টা করবেন না।’

তার ভাষায়, ‘ট্রল কাকে বলে, কত প্রকার ও কি কি- বিষয়টা আপনাকে বোঝাতে চাই না। ব্যক্তিগতভাবে আমার মনে হয়েছে মীর সাব্বির যখন বিবাহিত বলেছে, তখন আপনার মন খুব খারাপ হয়েছে। তাই আপনি প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য মীর সাব্বির সম্পর্কে আজেবাজে কথা বলছেন।’

উল্লেখ্য, গত ১১ নভেম্বর ‘মিসেস ইউনিভার্স ২০২২’র গ্র্যান্ড ফিনালের মঞ্চের উপস্থাপকের দায়িত্বে ছিলেন ইসরাত পায়েল। আর এই প্রতিযোগিতার বিচারক ছিলেন মীর সাব্বির। চূড়ান্ত পর্বের আয়োজনে বক্তব্য দিতে মঞ্চে উঠেন মীর সাব্বির। সেখান থেকে নামার ঠিক আগ মুহূর্তে উপস্থাপিকা পায়েল তাকে অনুরোধ করেন, আঞ্চলিক ভাষায় একটি সংলাপ বলার জন্য। আর মীর সাব্বিরের গ্রামের বাড়ি বরিশালে এটাও সবার জানা।

উপস্থাপিকার অনুরোধে মাইক্রোফোন হাতে নিয়ে এই অভিনেতা বলেন, ‘আমার নাটকের সংলাপ এখন মনে পড়ছে না।’ এরপর খানিকটা সময় নিয়ে তিনি আঞ্চলিক ভাষায় পায়েলের উদ্দেশে বলেন, ‘এই মাতারি তুমি এই রহম উদলা গাইয়ে দাঁড়ায় আছো কিয়ের লাইগ্যা।’

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles