11.3 C
Toronto
শনিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২২

বধূকে খুন করে বস্তায় ভরে নর্দমায় ছুড়ে ফেললেন প্রেমিক! ২ মাস পর দেহ উদ্ধার

বধূকে খুন করে বস্তায় ভরে নর্দমায় ছুড়ে ফেললেন প্রেমিক! ২ মাস পর দেহ উদ্ধার

বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের মর্মান্তিক পরিণতি। এক বধূকে খুন করে বস্তায় মুড়ে ফেলে দিলেন তাঁরই প্রেমিক। ২ মাস পর উদ্ধার হয়েছে সেই দেহ। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

- Advertisement -

ঘটনাটি হরিয়ানার করনালের। মৃত বধূর নাম রেণু। তিনি পেশায় আশাকর্মী ছিলেন। ২০০৫ সালে রেণুর বিয়ে হয়। গত ২ মাস ধরে তাঁকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না বলে অভিযোগ। থানায় নিখোঁজ ডায়েরিও করেছিলেন তাঁর পরিবারের লোকজন।

রেণুর পরিবারের অভিযোগ অনুযায়ী, গত ১৯ সেপ্টেম্বর তিনি স্কুটারে চড়ে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন। আর ফেরেননি। রবীন্দ্র নামে স্থানীয় এক যুবককে নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছিলেন তাঁরা।

ওই যুবককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ নিজেদের হেফাজতে নেয়। তদন্তে জানা যায়, রবীন্দ্রর সঙ্গে গত ৪ বছর ধরে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কে ছিলেন রেণু।

কিন্তু ৮ মাস আগে তাঁদের মধ্যে বচসা হয়। রবীন্দ্র এই সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে চেয়েছিলেন। কিন্তু, তাঁর দাবি, রেণু তাতে রাজি হননি। পুলিশ সূত্রে খবর, সেই কারণেই তিনি রেণুকে খুন করেন। জিজ্ঞাসাবাদের সময় সে কথা স্বীকার করে নিয়েছেন।

অভিযোগ, প্রেমিকাকে খুন করে তাঁর দেহ একটি বস্তায় ভরেছিলেন রবীন্দ্র। তার পর তা ফেলে দেন নর্দমায়। ২ মাস পর সেই দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃতের ভাই পুলিশকে জানিয়েছেন, তাঁর দিদির সঙ্গে রবীন্দ্রর ঝামেলা হয়েছিল।

৮ মাস আগে সেই নিয়ে পুলিশে অভিযোগও দায়ের করেছিলেন রেনু। তার প্রতিশোধ নিতেই খুন করেছেন বলে অভিযোগ মৃতের ভাইয়ের। সব দিক খতিয়ে দেখে তদন্ত চালাচ্ছে পুলিশ।

সূত্র : আনন্দবাজার

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles