3.4 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৮, ২০২২

দুই অভিনেত্রীর সঙ্গে পরকীয়ায় শোয়েব মালিক!

দুই অভিনেত্রীর সঙ্গে পরকীয়ায় শোয়েব মালিক!
শোয়েব মালিক, আয়েশা ওমর ও মাহিরা খান

পাকিস্তানি ক্রিকেটার শোয়েব মালিককে ভালোবেসে ২০১০ সালে নিজের দেশ ছেড়ে ছিলেন ভারতীয় টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা। সোনার সংসার গড়ে ছিলেন দুবাইতে গিয়ে। তবে তাদের ১২ বছরের সম্পর্কে হয়তো ইতি পড়বে। কারণ দুই অভিনেত্রীর সঙ্গে ‘পরকীয়ার’ গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে মালিকের সঙ্গে!

পাক-ভারতের বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবর, সানিয়া মির্জা এবং শোয়েব মালিক এখন আর একসঙ্গে থাকছেন না। যদিও তাদের একমাত্র সন্তান ইজহান মির্জা মালিককে একসঙ্গেই দেখাশোনা করছেন। শোয়েবের অন্য কোনও মহিলার সঙ্গে সম্পর্ক থাকার কারণে ১২ বছরের সম্পর্কে ইতি পরতে চলেছে। তবে এই বিষয়টি নিয়ে এখনও মুখ খোলেননি কেউই।

- Advertisement -

তবে সানিয়ার কিছু পোস্ট যেন জল্পনা বাড়িয়ে দিচ্ছে। ইনস্টাগ্রামে একটি স্টোরিতে তিনি লেখেন, ‘এই ভাঙা হৃদয় কোথায় যায়? ঈশ্বর খুঁজতে’। শুক্রবার সানিয়া ছেলেদের সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করেন যাতে দেখা যাচ্ছে ইজহান তাকে চুমু খাচ্ছে। সেই ছবির ক্যাপশনে সানিয়া লেখেন, কঠিন সময়ের মধ্যেও কিছু মুহূর্ত আমার কাছে বড্ড প্রিয়।

পাক গণমাধ্যম ডেইলি জাংয়ের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শোয়েবের সঙ্গে ‘পরকীয়ার’ গুঞ্জনে প্রথমজন হলেন পাকিস্তানি অভিনেত্রী আয়েশা ওমর। ২০২১ সালে একটি ম্যাগাজ়িনের জন্য ফটোশুটে এক সঙ্গে দেখা গেছে শোয়েব এবং আয়েশাকে। তারপর থেকেই অভিনেত্রীর সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে পাক ক্রিকেটারের নাম। ফটোশুটের ছবিগুলিতে শোয়েব এবং আয়েশাকে বেশ ঘনিষ্ঠ অবস্থায় দেখা যায়। পুলের জলে নেমে দু’জনের সিক্ত শরীরে ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছিলেন। পাক অভিনেত্রীর সঙ্গে শোয়েবের এমন ঘনিষ্ঠ ছবি দেখে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছিলেন, দু’জনের মধ্যে কোনও সম্পর্ক গড়ে উঠেছে কি না। পুলের জলে শোয়েবের সঙ্গে রীতিমতো রোম্যান্সে মজেছিলেন অভিনেত্রী আয়েশা। গাঢ় কমলা রঙের পোশাকে উষ্ণতা ছড়িয়েছিলেন তিনি। তাকে জড়িয়ে ধরে ছবি তুলেছিলেন শোয়েব। তার পরনে ছিল হালকা বেগুনি রঙের শার্ট। শুধু পুলের জলে দাঁড়িয়ে নয়, সংশ্লিষ্ট ম্যাগাজ়িনের জন্য আরও একাধিক ছবি তুলেছিলেন দুই পাক তারকা। কখনও তাদের দেখা গেছে শোয়ার ঘরে রোম্যান্টিক ভঙ্গিতে দাঁড়াতে, কখনও আবার খাবার টেবিলে দু’জনের খুনসুটি ধরা পড়েছিল ক্যামেরায়। আয়েশার সঙ্গে শোয়েবের সম্পর্ক নিয়ে যতই জল্পনা চলুক, কোনও পক্ষই তা নিয়ে মুখ খোলেনি। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে যখন শোয়েবের বিবাহবিচ্ছেদের গুঞ্জন শুরু হয়েছে, তখন অনেকে মনে করছেন, তার সঙ্গে গোপনে সাবেক পাক ক্রিকেটারের সম্পর্ক গড়ে উঠেছে কি না। সেই কারণেই কি সানিয়ার সঙ্গে সম্পর্কে ভাঙনের সূত্রপাত?

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আয়েশা নয়, আরেক পাক অভিনেত্রীর সঙ্গেও শোয়েবের সম্পর্ক নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছিল। চলতি বছরের শুরুর দিকে পাকিস্তানের জনপ্রিয় অভিনেত্রী মাহিরা খানের সঙ্গে শোয়েবের নাম জড়িয়েছিল। মাহিরার সঙ্গে ইনস্টাগ্রাম লাইভে এক বার আড্ডায় বসেছিলেন শোয়েব। দেশের পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা চলছিল। সেই শো-তে দেখা গিয়েছিল, অভিনেত্রীর সঙ্গে রীতিমতো ‘ফ্লার্ট’ করছেন সানিয়ার স্বামী। লাইভে মাহিরা বলেছিলেন,আমাদের দু’জনেরই বয়স বেড়ে গেছে। তার উত্তরে শোয়েবকে বলতে শোনা গিয়েছিল, তার নিজের বয়স বেড়েছে ঠিকই, তবে মাহিরার বয়স বাড়েনি। মজার ছলেই মাহিরা তখন শোয়েবকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন, বৌদি এই লাইভ দেখছে কি? মাহিরার প্রশ্নের জবাবে শোয়েব জানিয়েছিলেন, সানিয়া তাদের লাইভ দেখছেন। তবে তিনি মাহিরার ‘বৌদি’ নয়। হাসতে হাসতে তখন অভিনেত্রী জানিয়েছিলেন, সানিয়া গোটা পাকিস্তানের ‘বৌদি’। শোয়েব, মাহিরার এই কথোপকথনের পরিপ্রেক্ষিতে সানিয়ার প্রতিক্রিয়াও পাওয়া গিয়েছিল। ইনস্টাগ্রামেই তিনি লিখেছিলেন, হ্যাঁ, আমি দেখতে পাচ্ছি তোমরা দু’জন কী নিয়ে কথা বলছ। ইনস্টাগ্রামে সেই শো-এর পরেই গুঞ্জন, মাহিরার সঙ্গে পাক ক্রিকেটারের কোনও ‘গোপন সম্পর্ক’ গড়ে উঠেছে কি না। সানিয়া-শোয়েবের বিচ্ছেদের গুঞ্জনের মাঝে মাহিরার সঙ্গে সম্পর্কের গুঞ্জন আরও ডালপালা মেলেছে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles