3.4 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৮, ২০২২

সামরিক ইন্টেলিজেন্স নিয়ে কানাডা-জাপান আলোচনা

সামরিক ইন্টেলিজেন্স নিয়ে কানাডা-জাপান আলোচনা
পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেলানি জোলি

সামরিক গোয়েন্দা তথ্য বিনিময় নিয়ে আলোচনা শুরু করেছে কানাডা ও জাপান। উভয় দেশই চীন ও রাশিয়ার ক্রমবর্ধমান মোকাবিলার চেষ্টার মধ্যে থাকার পরিপ্রেক্ষিতে এ পদক্ষেপ নিয়েছে তারা।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেলানি জোলি এক টুইটে বলেন, গোয়েন্দা তথ্য বিনিময়ের মধ্য দিয়ে দেশে হুমকি মোকাবেলায় আমরা আরও বেশি সক্ষম হব এবং এই অঞ্চলে স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠায় অংশীদারদের সঙ্গে কাজ করতে পারবো।

- Advertisement -

এর আগে তিনি জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়োশিমাসা হায়াশির সঙ্গে টোকিওতে বৈঠক করেন এবং প্রতিরক্ষা ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে সহযোগিতা জোরদারে একটি কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করেন। এই পরিকল্পনার মধ্যে রয়েছে গোয়েন্দা তথ্য বিনিময়ের চুক্তি নিয়ে আনুষ্ঠানিক আলোচনা শুরু করা, যা জেনারেল সিকিউরিটি অব ইনফরমেশন এগ্রিমেন্ট নামে পরিচিত। তথ্য বিনিময় শুরু ও উভয় দেশের সামরিক বাহিনীর মধ্যে সহযোগিতা জোরদারের যত দ্রুত সম্ভব তারা একটি চুক্তিতে পৌঁছাতে চায় বলে জানিয়েছেন জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

ন্যাটো এবং আটটি দেশের সঙ্গেও একই ধরনের গোয়েন্দা তথ্য বিনিময়ের চুক্তি রয়েছে জাপানের। দেশগুলো হলো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, ব্রিটেন, ভারত ও দক্ষিণ কোরিয়া।

কানাডা হচ্ছে ফাইভ আইস ইন্টেলিজেন্স অ্যালায়েন্সের অংশ। অ্যালায়েন্সের দেশগুলো হলো অস্ট্রেলিয়া, নিউ জিল্যান্ড, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র।
জাপান তাদের প্রধান মিত্র যুক্তরাষ্ট্রের বাইরেও অন্যান্য দেশের সঙ্গে সম্প্রতি প্রতিরক্ষা সহযোগিতা গভীর করছে। এই অঞ্চলে চীনের ক্রমবর্ধমান উপস্থিতি ও রাশিয়ার ইউক্রেন হামলার পরিপ্রেক্ষিতে এই উদ্যোগ নিয়েছে তারা।

উভয় দেশের মধ্যে সামরিক মহড়ার পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গেও এ ধরনের মহড়ার মাধ্যমে জাপান ও কানাডা তাদের সামরিক বন্ধন সম্প্রসারণ ও গভীর করতে চায়। জোলি বলেন, কানাডার ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় কৌশল জাপানসহ সমভাবাপন্ন অংশীদারের উদ্যোগকে এগিয়ে দেবে।
লিবারেল সরকার কয়েক মাস ধরেই ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় কৌশল প্রকাশের চাপে রয়েছে। এ বছরের শেষ নাগাদ কৌশলটি প্রকাশের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন মেলানি জোলি।

প্রাকৃতিক সম্পদের ঘাটতিতে থাকা জাপান তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস সরবরাহ নিশ্চিত করতেও কানাডার সঙ্গে সহযোগিতা বাড়ানোর ব্যাপারে আগ্রহী।

This article was written by Sohely Ahmed Sweety as part of the LJI.

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles