4.4 C
Toronto
মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৯, ২০২২

পশুপ্রেমী নারী গ্রেফতার : বাস করছিলেন একলাখ তেলাপোকা-পাখি-সাপ-কচ্ছপের সঙ্গে!

পশুপ্রেমী নারী গ্রেফতার : বাস করছিলেন একলাখ তেলাপোকা-পাখি-সাপ-কচ্ছপের সঙ্গে!
পশুপাখিদের আটকে রাখার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় কারিনকে

ঘটনাটি যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের। সেখানে বাড়িতে চিড়িয়াখানা বানিয়ে গ্রেফতার হতে হলো কারিন কিজ (৫১) নামের পশুপ্রেমী নারীকে। সম্প্রতি তাকে গ্রেফতার করেন নিউ ইয়র্কে পুলিশ। ওই নারী নিজেকে একজন সমাজকর্মী এবং পশুপ্রেমী হিসাবে দাবি করেন। তবে জোর করে পশুপাখিদের আটকে রাখার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় কারিনকে।

জানা গেছে, গত মঙ্গলবার তার বাড়িতে তল্লাশি চালানো হয়। এসময় ১ লাখ তেলাপোকা, ১১৮টি খরগোশ, নানা প্রজাতির দেড়শো পাখি, ৭টি কচ্ছপ, ৩টি সাপ ও ১৫টি বিড়াল উদ্ধার করা হয়। অভিযোগ রয়েছে, পশুপাখি, কীটপতঙ্গদের অত্যন্ত অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে রেখেছিলেন কারিন। বাড়িময় ছড়িয়ে-ছিটিয়ে ছিল তাদের মলমূত্র। উদ্ধারকারীরা কারিনের বাড়িতে দুর্গন্ধে বেশি ক্ষণ টিকতে পারেননি বলেও দাবি করেছেন। তাদের বিশেষ পোশাক পরে ওই বাড়িতে ঢুকতে হয়েছিল।

- Advertisement -

ওই নারীর পরিচিতরা জানিয়েছেন, ঘনিষ্ঠ মহলে কারিন ‘স্নো হোয়াইট’ নামে পরিচিত। পশুপাখি, কীটপতঙ্গদের নিয়ে থাকতেই পছন্দ করেন তিনি। তাদের ছাড়া থাকতে পারেন না। কোথা থেকে এত পশুপাখি তিনি সংগ্রহ করলেন, তা-ও জানা গিয়েছে পরিচিতদের বয়ান থেকেই। নিকটবর্তী একটি পশু সংগ্রহশালা বন্ধ হয়ে যাচ্ছিল। খবর পেয়ে সেখানে ছুটে গিয়েছিলেন কারিন। পশুপাখিগুলো যাতে ‘ঘরছাড়া’ না হয়ে যায়, তাই তাদের আশ্রয় দেন তিনি।

বিষয়টি নিয়ে প্রশাসন জানিয়েছে, উদ্ধার করা পশুপাখিগুলোকে বাঁচানো যাবে। তবে যে পরিবেশে তাদের রাখা হয়েছিল, সেখানে আর বেশি দিন থাকলে সকলের মৃত্যু হতে পারত। প্রাণীর বেঁচে থাকার উপযোগী পরিবেশ কারিনের বাড়িতে ছিল না বলে অভিযোগ। কারিনের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলো প্রমাণিত হলে তার জেল পর্যন্ত হতে পারে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles