4.4 C
Toronto
সোমবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২২

কনজার্ভেটিভ পার্টির নতুন নেতা পয়লিয়েভর

কনজার্ভেটিভ পার্টির নতুন নেতা পয়লিয়েভর
পিয়েরে পয়লিয়েভর

কনজার্ভেটিভ পার্টির নেতৃত্বের নির্বাচনে বড় ব্যবধানে জয় পেয়েছেন পিয়েরে পয়লিয়েভর। জয়টা উপভোগ করতে কিছুটা সময় তিনি হয়তো নেবেন। কিন্তু তার আগে কিছু কাজ করতে হবে তাঁকে।

৯ দিনের জন্য হাউজ অব কমন্সের অধিবেশন বসতে যাচ্ছে। এর অর্থ হচ্ছে পয়লিয়েভর ও তাঁর ঘনিষ্ঠ মহলকে ক্রিটিক পদগুলো পূরণ করতে হবে। এসব পদ পূরণে পয়লিয়েভরের কাছে নামের অভাব নেই। কারণ, দলের ১১৮ জন এমপির মধ্যে ৬২ জনই নেতৃত্বের প্রচারণায় তাঁর পক্ষে কাজ করেছেন। এছাড়া স্কট এইচিসন ও লেসলিন লুইসের মতো যেসব এমপি নেতৃত্বে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন তাঁদেরকে কোথায় রাখবেন সেটাও একটা প্রশ্ন।

- Advertisement -

এছাড়া কনজার্ভেটিভ ককাসেরও বৈঠক রয়েছে। ওই বৈঠকে ঠিক করা হবে হেমন্তে দলের অগ্রাধিকারগুলো।
শনিবারের নেতৃত্বের নির্বাচনের যে ফলাফল, তাতে পয়লিয়েভর শুধু জয়লাভই করেননি। বড় ব্যবধানে জিতেছেন। সত্যিই বড় ব্যবধানে। বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, কুইবেকসহ দেশের ৩৩৮টি রাইডিংয়ের প্রায় সবগুলোতেই জয় পেয়েছেন পয়লিয়েভর।

আলবার্টার সাবেক প্রিমিয়ার জঁ চ্যারেস্টের জন্য এটা অস্বস্তির। নেতৃত্বের নির্বাচনে তিনি পয়লিয়েভরের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বি ছিলেন।

আরেক প্রতিদ্বন্দ্বি লুইস মাত্র ৯ শতাংশ সমর্থন পেয়েছেন। ২০২০ সালের নেতৃত্বের নির্বচানে তৃতীয় স্থঅনে থাকা লউইসকে নিয়ে অনেকেই আশাবাদী ছিলেন। তবে লুইস ও চ্যারেস্টের সমর্থক এবং যারা অন্টারিওর এমপি স্কট এইচিসন ও অন্টারিওর সাবেক আইনপ্রণেতা রোমান বেবারের প্রতি সমর্থন দিয়েছিলেন, তাদের প্রত্যেকের কাছেই পৌঁছতে যান পয়লিয়েভর। বিজয় বক্তৃতায় সেটাই বলেছেন তিনি। পয়লিয়েভর বলেন, আপনাদের জন্য আমার বাহু উন্মুক্ত।

দলের মধ্যে ঐক্যের প্রয়োজনীয়তার কথা বলেন বিদায়ী অন্তবর্তী দলীয় নেতা ক্যান্ডিস বার্গেন। এদিকে প্রথম ভোটাভুটিতে ৭০ শতাংশের মতো ভোট পাওয়াকে পয়লিয়েভরের জন্য প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে ভালো বলে মনে করছেন।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles