4.6 C
Toronto
সোমবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২২

বিমান বন্দর সমাচার !

বিমান বন্দর সমাচার !
ফাইল ছবি

বিমান বন্দরে লাগেজ চুরি হওয়া, অন্যের কৃতিত্ব নিজের বলে চালিয়ে দেয়া, বিজয়ী কোচ ও অধিনায়ককে পেছনে দাঁড় করিয়ে মাকাল ফলদের সামনে বসে বকবক করা সবই আমাদের দীর্ঘদিনের প্রচলিত ব্যবস্হার খন্ডিত চিত্র নাট্য। এতে অনেকেই অবাক হয়েছেন দেখে আমি অবাক হলাম।

জাষ্ট চোখ বন্ধ করে আপনার নেতা নেত্রীর বক্তব্য স্মরণ করুন। এমনকি আপনারা নিজেরা কোন একটা কাজ করে তার সকল ক্রেডিট আপনার নেতা বা নেত্রীকে দিয়ে দেন না? ১৮ কোটি মানুষের দেশে যা কিছু ভাল হয় সব ক্রেডিট কে নেন? কাকে দেন? আর বিমান বন্দরে লাগেজ চুরি বা খারাপ কিছু হলে কেষ্ট বেটাই চোর, বলেন না?

- Advertisement -

যখন আপনার হাঁড়ি ছিদ্র থাকবে তখন সেই হাঁড়িতে পানি বা শরবত যাই থাকুক না কেন ছিদ্র দিয়ে বের হবেই।

প্রতিদিন প্রবাসীদের লাগেজ খোঁয়া যায়, হয়রানি হয় সে ব্যাপারে কারো কোন খেয়াল আছে? নেই। তাহলে যে বেল্ট থেকে প্রতিনিয়ত লাগেজ চুরি হয় সেই বেল্ট থেকে কোন পীর সাহেবের লাগেজ চুরি হলো নাকি সাফ বিজয়ীদের লাগেজ চুরি হলো সেটা দেখার দায়িত্ব কি ওই লাগেজ চোরদের?

অতএব এটা বলা যায় বিমান বন্দরে চোরেরা খেলোয়ারদের লাগেজ চুরি করে এবং বাফুফের কর্মকর্তারা কোচ ও বিজয়ী খেলোয়ারদের পেছনে দাঁড় করিয়ে নিজেরা গলায় মালা নিয়েছেন বা সামনের চেয়ারে বসে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেছেন এসবই তারা জাষ্ট রুটিন কাজগুলোই করেছেন, ব্যতিক্রম কিছুই করেন নি তারা। না লাগেজ চোরেরা, না বাফুফের লোকেরা!

স্কারবোরো, কানাডা

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles