10.9 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২

৩ লাখ বেতনে রুশ বাহিনীতে চাকরি, সুযোগ পাবেন বিদেশিরাও

- Advertisement -

চলতি বছরের গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের সামরিক অভিযানের ঘোষণা দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এরপর আজ মঙ্গলবার পর্যন্ত টানা ২০৯ দিনের মতো চলছে দেশ দুইটির সংঘাত। এতে দুই পক্ষের বহু হতাহতের খবর পাওয়া যাচ্ছে।

রাশিয়া ইউক্রেনে তুমুল সেনা সংকটে ভুগছে বলে দাবি পশ্চিমা গোয়েন্দাদের। এছাড়া সম্প্রতি রাশিয়া তাদের কয়েদিদের ইউক্রেন যুদ্ধে পাঠাতে মরিয়া বলে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে। এরমধ্যে রাশিয়ার চুক্তিতে সেনা নিয়োগের খবর দিয়েছে রয়টার্স, আল-জাজিরা।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনে বিশেষ অভিযানের জন্য চুক্তিতে সেনা নিয়োগ দিচ্ছে রাশিয়ার সেনাবাহিনী। বেতন হিসেবে প্রতিমাসে নিয়োগপ্রাপ্ত সেনারা পাবে অন্তত তিন হাজার মার্কিন ডলার যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় তিন লাখ টাকা।

স্বেচ্ছাসেবকদের আকৃষ্ট করতে দেশটির বাহিনী ‘মোবাইল রিক্রুটিং ট্রাক’ ব্যবহার করছে। তেমনি দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় রুস্তভ শহরে গতকাল শনিবার এক বিশেষ ইউনিটকে এমন ট্রাকের সামনে দেখা গেছে।

সেনারা মুখে কালো মাস্ক পরে সেনার বেশে দাঁড়িয়ে ছিল। তারা তাদের বন্দুক দেখিয়ে রাস্তার লোকজনদের আকৃষ্ট করার চেষ্টা করছিল। সেইসঙ্গে ‘চুক্তিতে সামরিক পরিষেবা- একজন প্রকৃত পুরুষের পছন্দ’ শিরোনামে ‘লিফলেট’ বিতরণ করছিলেন।

রুস্তভে ওই ট্রাকের ইনচার্জ বলেন, ১৮ থেকে ৬০ বছর বয়সী রুশ ও বিদেশিরা যারা অন্তত উচ্চ-মাধ্যমিক পাশ তারা এই নিয়োগের জন্য প্রযোজ্য হবেন।

মেজর সের্গেই আর্দাশেভ বলেন, যারা দেশপ্রেমী মনের তারা বিশেষ সামরিক অভিযানের জন্য তিন অথবা ছয় মাসের জন্য চুক্ততিতে নিয়োগপ্রাপ্ত হবেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রতিমাসে বেতন হবে এক লাখ ৬০ হাজার রুবল (দুই হাজার ৭০০ ডলার) যা বাংলাদেশি মুদ্রায় আড়াই লাখ টাকার বেশি।

এদিকে রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধে কোনো দেশই তাদের হতাহত সেনাদের পরিসংখ্যান সরকারিভাবে প্রকাশ করেনি। তবে পশ্চিমা গোয়ন্দা সংস্থাগুলোর ধারণা, উভয় দেশই যুদ্ধে হাজার হাজার সেনা হারিয়েছে।

Related Articles

Latest Articles