12.9 C
Toronto
বুধবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২২

শিশুটিকে হত্যার করে লাশ আলমারিতে লুকিয়ে রাখলো ভাড়াটিয়া

- Advertisement -

নরসিংদীর শিবপুরে সায়মা জাহান (৮) নামে ২য় শ্রেণীর এক ছাত্রীর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে শিবপুর উপজেলার যোশর ইউনিয়নের তমিজ উদ্দিনের ভাড়াটিয়া হানিফ মিয়ার আলমারি থেকে শিশুটির বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত সায়মা জাহান শিবপুর উপজেলার যোশর ইউনিয়নের সারোয়ারের মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার দুপুরে বাড়ির পাশে খেলতে গিয়ে নিখোঁজ হয় সায়মা জাহান। পরে তার পরিবার মাইকিং করে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। কোথাও সন্ধান না পেয়ে খেলতে যাওয়া হানিফের শিশু সন্তানকে জিজ্ঞেস করলে সে জানায়, সায়মা তাদের ঘরে আছে। পরে সায়মার পরিবার ও স্থানীয়রা হানিফ মিয়ার ঘরে তল্লাশি চালিয়ে আলমারিতে বস্তাবন্দি অবস্থায় শিশু সায়মার লাশ উদ্ধার করে। এসময় হানিফ ও তার স্ত্রী শেলিকে আটক করে স্থানীয়রা। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশু সায়মার লাশ উদ্ধার ও আটক দুজনকে শিবপুর মডেল থানায় নিয়ে যায়।

নিহত সায়মার বাবা সারোয়ার হোসেন জানান, স্কুল থেকে ফিরে সায়মা খেলতে বের হয়। তখন তার গলায় একটি চেইন ও কানের দুল ছিল। পার্শ্ববর্তী বাড়ির শেলি সায়মার কানের দুল ছিনিয়ে নেয়।

বিষয়টি সায়মা আমাদেরকে বলে দেবে এই কথা বলার পর শেলি তাকে গলা টিপে হত্যা করে। মরদেহ বস্তাবন্দি করে আলমারির ভেতরে রেখে দেয়। পরে তার শিশু মেয়েই আমাদেরকে বিষয়টি জানিয়ে দেয়।

নরসিংদী শিবপুর মডেল থানার (ওসি) সালাউদ্দিন মিয়া জানান, নিহত সায়মা জাহানের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হচ্ছে। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় অভিযুক্ত হানিফ ও স্ত্রী শেলি বেগমকে আটক করা হয়েছে।

সূত্র : নতুন সময়

Related Articles

Latest Articles