21.9 C
Toronto
শনিবার, জুন ২২, ২০২৪

আবারও ব্যর্থ নাসা, চন্দ্রাভিযান স্থগিত

আবারও ব্যর্থ নাসা, চন্দ্রাভিযান স্থগিত
ছবি বিবিসি

এক সপ্তাহের মধ্যে দ্বিতীয়বারের মতো মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থার (নাসা) সবচেয়ে শক্তিশালী রকেটের উৎক্ষেপণ বাতিল করা হলো।

সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, মহাকাশযান ‘আর্টেমিস-ওয়ানের’ হাইড্রোজেন ট্যাংকে লিকেজ খুঁজে পাওয়ার পর সময় মতো তা মেরামতে ব্যর্থ হয়ে ফের চন্দ্রাভিযান স্থগিত করেছে নাসা। কবে নাগাদ রকেটটি উৎক্ষেপণ করা যাবে সে বিষয়ে এখনও কোনো তথ্য জানায়নি সংস্থাটি।

- Advertisement -

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে স্থানীয় সময় শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) দুপুর ২টা ১৭ মিনিটে চাঁদের কক্ষপথের দিকে রওনা হওয়ার কথা ছিল নভোচারীবিহীন ‘আর্টেমিস-ওয়ানের’।

এর আগে গত ২৯ আগস্ট এই মহাকাশযান উৎক্ষেপণের কথা ছিল। সে অনুযায়ী নেয়া হয়েছিল সব প্রস্তুতি। কিন্তু উৎক্ষেপণের কয়েক মিনিট আগে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয়ায় সেদিন চন্দ্রাভিযান স্থগিত করে নাসা।

আরও পড়ুন: চাঁদে যেতে ফের প্রস্তুত নাসার ‘আর্টেমিস-১’

এ অভিযানের অন্যতম দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাইক সারাফিন জানান, প্রযুক্তিগত কারণে গত সপ্তাহে আর্মেটিস-ওয়ানের উৎক্ষেপণ স্থগিত রাখা হয়েছিল। শনিবার আবার সেটি চাঁদের কক্ষপথের দিকে রওনা হওয়ার কথা রয়েছে। এবার সবকিছু ঠিক থাকবে বলে নাসার পক্ষ থেকে দাবি করা হলেও শেষ পর্যন্ত তা হয়নি।

তিন ধাপের মিশনে প্রথম রকেটটি যাওয়ার কথা মানুষ ছাড়াই। ৩২২ ফুট লম্বা মেগা রকেট আর্টেমিস-১ বানাতে খরচ হয়েছে ৯৩ বিলিয়ন ডলার, যা এযাবৎকালে নাসার তৈরি সবচেয়ে শক্তিশালী রকেট বলে জানিয়েছে সংস্থাটি। নাসার এ অভিযান সফল হলে দীর্ঘ ৫০ বছরের বেশি সময় পর আবারও চাঁদের বুকে পা রাখবে মানুষ।

১৯৬৯ সালে অ্যাপোলো মিশনের মাধ্যমে প্রথম চাঁদে মানুষ পাঠায় নাসা। ১২ মার্কিন নভোচারী চাঁদের বুকে পা রাখার পর ১৯৭২ সালে পর্দা নামে চন্দ্রবিজয়ের ধারাবাহিক অভিযানের। এরপর মহাকাশ গবেষণার অনেক অগ্রগতি হলেও চাঁদে আর কোনো মানুষের পা পড়েনি।

 

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles