16.2 C
Toronto
রবিবার, জুন ১৬, ২০২৪

মিথ্যা ধর্ষণ মামলা করে পুলিশের জালে নারী ইউপি সদস্য

মিথ্যা ধর্ষণ মামলা করে পুলিশের জালে নারী ইউপি সদস্য

দেলদুয়ার উপজেলায় মিথ্যা ধর্ষণ মামলা করে গ্রেফতার হয়েছেন রোকসানা বেগম নামে এক নারী ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য। মামলাটি মিথ্যা প্রমাণ হওয়ায় স্বামীসহ তিনি গ্রেফতার হন।

- Advertisement -

বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) রাতে তাদের গ্রেফতার করা হয়। রোকসানার স্বামীর নাম শাহাদত হোসেন।

দেলদুয়ার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাছির উদ্দিন মৃধা জানান, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ডুবাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ইলিয়াস মিয়ার বিরুদ্ধে গত ১১ এপ্রিল ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ করেন একই পরিষদের ইউপি সদস্য রোকসানা বেগম।

পরে গত ১৯ এপ্রিল চেয়ারম্যানকে আসামি করে দেলদুয়ার থানায় মামলা দায়ের করেন তিনি। গত ২৪ আগস্ট ধর্ষণের অভিযোগটি মিথ্যা প্রমাণিত হয়।

ফলে টাঙ্গাইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক খালেদা ইয়াসমিন মামলাটি খারিজ করে দেন। এরপর চেয়ারম্যান ইলিয়াস মিয়া ধর্ষণচেষ্টা মামলার বাদি ইউপি সদস্য রোকসানা বেগম ও তার স্বামী শাহাদত মিয়ার বিরুদ্ধে ১৭ ধারায় আদালতে মামলা দায়ের করেন। দায়েরকৃত মামলায় আদালত রোকসানা বেগম ও তার স্বামী শাহাদতের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

এর পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার রাতে রোকসানা ও শাহাদত হোসেনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সূত্র : বাংলানিউজ

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles