14.1 C
Toronto
রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২২

রজার্সের শ অধিগ্রহণ আটকে দেওয়ার আহ্বান

- Advertisement -
রজার্স কমিউনিকেশন্সের পরিকল্পিত প্রতিদ্বন্দ্বী শ অধিগ্রহণ আটকে দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন টেলিযোগাযোগ বিশেষজ্ঞরা

রজার্স কমিউনিকেশন্সের পরিকল্পিত প্রতিদ্বন্দ্বী শ অধিগ্রহণ আটকে দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন টেলিযোগাযোগ বিশেষজ্ঞরা। গত মাসের শুরুর দিকে রজার্স কমিউনিকেশন্সের নেটওয়ার্ক বিপর্যয় নিয়ে ভূমিকা পালনে ব্যর্থ হওয়ায় অটোয়া ও ফেডারেল টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষেরও সমালোচনা করেছেন তারা।
হাউজ অব কমন্সের এ সংক্রান্ত কমিটি নেটওয়ার্ক বিপর্যয় নিয়ে বিভিন্ন বিশেষজ্ঞদের মতামত শোনে। এমনকি এ সংক্রান্ত মন্ত্রী ফ্রাসোয়াঁ-ফিলিপে শ্যাম্পেইন, রজার্সের নির্বাহী এবং কানাডিয়ান রেডিও-টেলিভিশন অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন্স কমিশনের (সিআরটিসি) কর্মকর্তাদের বক্তব্য শোনেন কমিটির সদস্যরা।

বিশেষজ্ঞরা কমিটিকে বেশ কিছু সুপারিশ তুলে ধরেন। এই খাতে প্রতিযোগিতা নিশ্চিত করা এবং রজার্স-শ অধিগ্রহণ আটকে দেওয়া এর মধ্যে অন্যতম।
রজার্স ২ হাজার ৬০০ কোটি ডলারে শর সঙ্গে একীভবনের চেষ্টা করছে। কিন্তু এ জন্য কম্পিটিশন ব্যুরো ও শ্যাম্পেইনের কার্যালয়ের অনুমোদন এখনও বাকি রয়েছে।

৮ জুলাই রজার্সের নেটওয়ার্ক বিপর্যয়ের ফলে কানাডাজুড়ে অসংখ্য গ্রাহক ভোগান্তিতে পড়েন। এমনকি জরুরি সেবার জন্য যোগাযোগ করতেও ব্যর্থ হন তারা। কমিটির সামনে সাক্ষ্য দেওয়া চারজন বিশেষজ্ঞই এই বিপর্যয় নিয়ে সিআরটিসির ভূমিকার সমালোচনা করেন। এ ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত না করার জন্যও সিআরটিসির সমালোচনা করেন তারা।

কার্লটন ইউনিভার্সিটির স্কুল অব জার্নালিজম অ্যান্ড কমিউনিকেশন বিভাগের পিএইচডি প্রার্থী বেন ক্লাস বলেন, বিপর্যয়ের কারণে জরুরি সেবায় প্রবেশ না পাওয়ার দায় সিআরটিসির।

টেলিকম রেগুলেটরের বাড়তি ক্ষমতা দরকার কিনা জানতে চাওয়া হয় সিআরটিসির প্রধান ইয়ান স্কটের কাছে। জবাবে স্কট বলেন, কোনো প্রভিশনই বিপর্যয় আটকাতে পারত বলে আমরা মনে হয় না। নেটওয়ার্ক বিপর্যয় ও নেটওয়ার্কের নির্ভরযোগ্যতার সমস্যা আমি মনে করি সংশ্লিষ্ট খাতকেই সমাধান করতে হবে।
পাবলিক ইন্টারেস্ট অ্যাডভোকেসি সেন্টারের নির্বাহী পরিচালক জন লফোর্ড বলেন, সিআরটিসির সমস্যা হলো মানসম্মত সেবার শর্ত তারা আরোপ করতে পারে না।

কীভাবে এই বিপর্যয় ঘটে এবং তাদের নেটওয়ার্ক কী মাত্রায় ক্ষতিগ্রস্ত হয় সে ব্যাখ্যাসম্বলিত চিঠি সিআরটিসিতে দাখিল করেছে রজার্স কমিউনিকেশন্স। স্কট বলেন, কমিশন বিষয়টি মূল্যায়ন করে দেখছে এবং পরবর্তী পদক্ষেপ কী হতে পারে তা নিয়েও চিন্তা-ভাবনা করছে। নেটওয়ার্ক উন্নত করবে বলে জানিয়েছে রজার্স। সেটা যাতে তারা করে সিআরটিসি তা নিশ্চিত করবে।

Related Articles

Latest Articles