22 C
Toronto
বুধবার, আগস্ট ১০, ২০২২

‘এখনো কানে বাজে- জীবন্ত পুড়িয়ে মারা কিশোরীর আর্তনাদ’

- Advertisement -

আগুনে ভস্ম করে দেয়া মিয়ানমারের ইয়া মায়েত গ্রামের চিত্র- বিবিসি।

এখনো কানে বাজে জীবন্ত পুড়িয়ে মারা কিশোরীর আর্তনাদ এখনো কানে বাজে- বিবিসিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এভাবেই জান্তা সরকারের নৃশংসতার কথা স্বীকার করেন মিয়ানমারের এক সেনা সদস্য।

আজও সেই কিশোরীকে ভুলতে পারেননি বলেও জানান তিনি।

বিবিসির এই সাক্ষাৎকারে উঠে আসে মিয়ানমারে বেসামরিক নাগরিকদের হত্যা ও নির্যাতনের নানান ঘটনা।

রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নৃশংসতার কথা পুরো বিশ্বই জানে। এরপর অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে অং সান সুচির নেতৃত্বাধীন গণতান্ত্রিক সরকারকে হটিয়ে সেনাবাহিনীর ক্ষমতায় আসাও স্পষ্ট পুরো বিশ্বে।

এবার সংবাদ মাধ্যম বিবিসিতে উঠে এল সামরিক সরকারের নৃশংসতার আরেকটি চিত্র। খোদ দেশটির ৬ সেনা সদস্য স্বীকার করেন হত্যা, নির্যাতন ও ধর্ষণের কথা।

গেল বছরের ২০ ডিসেম্বর ইয়া মায়েত গ্রামে অভিযানের কথা বর্ণনা করেন এক সেনা সদস্য। তিনি বলেন, জীবন্ত এক কিশোরীকে ঘরে আটকে রেখে পুড়িয়ে দেন তারা, সেই আর্তনাদ এখনও তার কানে বাজে।

সাক্ষাৎকার দেন একজন কর্পোরালসহ ছয় সেনা ও কয়েকজন ভুক্তভোগী। ক্ষমতা আঁকড়ে ধরে রাখতে একটি সামরিক সরকার কতটা মরিয়া- সেই চিত্রই উঠে আসে তাদের বক্তব্যে।

একইসঙ্গে কীভাবে ব্যাপকভাবে মানবাধিকার লঙ্ঘন করার নির্দেশনা দেয়া হয়- তাও স্পষ্টভাবে ফুটে ওঠে তাদের জবানিতে।

গেলো ডিসেম্বরে মিয়ানমারের ওই গ্রামে তিন দিনের ঘটনায় ১০ জন নিহত হন। আটজন কিশোরীকে নির্যাতনের খবর পাওয়া গেছে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles