22 C
Toronto
বুধবার, আগস্ট ১০, ২০২২

টরন্টোর হাসপাতালগুলোর দূরাবস্থা

- Advertisement -
ফাইল ছবি

কয়েকদিন আগেও একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে কানাডার তিনটি শহর টরন্টো, ক্যালগরী এবং ভ্যান্কুভার বিশ্বের বাসযোগ্য সেরা দশটি শহরের মধ্যে স্হান পেয়েছে। ২০২১ সালে সার্বিক বিচারে কানাডা বিশ্বের সেরা দেশ হিসেবে স্হান পেয়েছিল। এর অন্যতম একটি কারণ হলো এখানকার স্বাস্হ্য ব্যবস্হা। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখজনক হলো এই টরন্টো শহরেই এমন কিছু হাসপাতাল আছে, ক্লিনিক আছে যা অত্যন্ত নিম্নমানের ব্যবস্হাপনায় জর্জরিত। দেখার কেউ নেই।

আরো ফানি বিষয় হলো, নির্বাচন আসলেই এখানকার এমপি এবং এমপিপি প্রার্থীরা মানুষের কাছে অত্যন্ত স্পর্শকাতর এই স্বাস্হ্য ব্যবস্হা ও হাসপাতালগুলোর দুরাবস্হার ইস্যুটা তাদের নির্বাচনী বৈতরণী পার হবার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে বড় বড় কথা বলে কিন্তু নির্বাচন পার হলে একটি বারের জন্যেও কোন হাসপাতালে ফুঁচি দিয়েও দেখে না। এটা একটা বড় ধরনের প্রতারণা বলে আমি মনে করি।

কয়েকদিন আগে বুকের মধ্যে অস্বস্তি নিয়ে প্রথমবারের মত গিয়েছিলাম স্কারবরো জেনারেল হাসপাতালের ইমার্জেন্সী বিভাগে। সাংঘাতিক অব্যস্হাপনার শিকার সেই গুরুত্বপূর্ণ জায়গাটি। ঘন্টাখানেক বসে থেকে সেখানকার দায়িত্বপালনরত একজন ক্লার্ক/নার্সকে কিছু বলতে গেলে বললো, অমুক নার্সের সাথে কথা বল। আমি বললাম, নো, আমি কোন নার্সের সাথে আর কথা বলবো না, সেটা বলতে গেলে আমাকে এই দুরাবস্হার মধ্যে আরো কয়েক ঘন্টা বসে থাকতে হবে। আমি চলে যাচ্ছি তবে কথা বলবো তোমাদের স্বাস্হ্য মন্ত্রীর সংগে। বলেই ডাক্তার না দেখিয়েই চলে এলাম।

পরবর্তীতে ভাবলাম টরন্টোর এইসব হাসপাতালের দুরবস্থা নিয়ে কিছু একটা করবো যাতে সাধারণ মানুষের উপকার হয়। কিছু একটা করতে পেরেছি। যার সুফল স্কারবরো জেনারেল হাসপাতালের ইমার্জেন্সী রোগীরা পাবেন বলে আশা করি। গতকালও কথা হলো সেখানকার ম্যানেজারের সাথে যিনি ওই বিভাগের মুল দায়িত্বে আছেন। তিনি নিজেই দুবার কল দিয়েছেন। প্রথমবার আমি আমার অফিসের মিটিংয়ে ব্যস্ত ছিলাম বিধায় কথা বলতে পারি নি। একঘন্টা পরে তিনি আবার কল দিলে বিস্তারিত আলাপ হলো। এসব নিয়েই খুব শীঘ্রই একটি ভিডিও বক্তব্য রেকর্ড করে পোষ্ট দিব আশা করি ইনশাআল্লাহ।

স্কারবোরো, অন্টারিও, কানাডা

- Advertisement -
আগের খবরটরন্টো ট্যুর
পরের খবরভালোবাসা

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles