22.7 C
Toronto
বুধবার, আগস্ট ১৭, ২০২২

কাদের সিদ্দিকী ও জাফরুল্লাহ চৌধুরী যা বললেন

- Advertisement -
কাদের সিদ্দিকী ও জাফরুল্লাহ চৌধুরী

পদ্মা সেতুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের সাক্ষী হতে গতকাল সকালে মাওয়া প্রান্তে সুধী সমাবেশে দেশের রাজনীতিবিদ এবং বিশিষ্টজনদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। এ সময় সাংবাদিকদের কাছে নিজ নিজ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন তারা। কাদের সিদ্দিকী বলেন, এই দুর্যোগের সময় এতটা না করলে আরও ভালো হতো। অন্যদিকে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রজ্ঞার পরিচয় দিয়েছেন।

কাদের সিদ্দিকী : পদ্মা সেতুর উদ্বোধন ভোটের রাজনীতিতে আওয়ামী লীগকে খানিকটা এগিয়ে নেবে স্বীকার করে বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী সাংবাদিকদের বলেন, কেউ কাজ করলে সে অগ্রসর হবে না কেন। নিশ্চয়ই হবে। তবে এই দুর্যোগের সময় এতটা না করলে আরও ভালো হতো। এই টাকাটা যদি নেত্রকোনা, কিশোরগঞ্জ, সিলেট, হবিগঞ্জে বন্যার্তদের মাঝে খরচ করত এবং এই উদ্যম নিয়ে আওয়ামী লীগের লোকেরা যদি সেখানে কাজ করত- তাহলে আরও ভালো হতো। তিনি আরও বলেন, আসলে কোনো কাজ থাকলে তার মধ্যে বাধা থাকে। বাধা অতিক্রম করে কাজ করায় আনন্দ আছে। আজকে এত কিছুর পরও এই যে পদ্মা সেতু হয়েছে, এ জন্য অহংকার করারও কোনো কারণ নেই, আবার দুঃখিত হওয়ারও কারণ নেই। যারা এর সমালোচনা করেছে, তারাও ঠিক করেছে। যারা এটায় আশান্বিত হয়েছে তারাও ঠিক করেছে। যারা আগে সমালোচনা করেছে, যাদের বিশ্বাস হয়নি, এখন হয়ে গেছে এবং এখন তাদের বিশ্বাস হবে। এ জন্য তাদের মাটির তলে দিয়ে দেওয়ার কিন্তু কোনো মানে হয় না।

জাফরুল্লাহ চৌধুরী : ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রজ্ঞার পরিচয় দিয়েছেন। যেমনটা তাঁর বাবা (বঙ্গবন্ধু) প্রজ্ঞার পরিচয় দিয়েছিলেন ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ। শেখ হাসিনা সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়ে জাতিকে পদ্মা সেতু উপহার দিয়েছেন। জাতি এতে গৌরবান্বিত। তিনি বলেন, সবাই বলেছিল, এই সেতুর নাম শেখ হাসিনা সেতু করতে। তিনি (প্রধানমন্ত্রী) সেটা করেননি। পদ্মা সেতু নাম রেখেছেন। ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেছেন। ইতিহাসে অনেক কিছু দেখেছি। মুক্তিযুদ্ধ দেখেছি। এবার পদ্মা সেতুর উদ্বোধন দেখলাম। জাফরুল্লাহ চৌধুরী প্রধানমন্ত্রীকে এখন দেশের মানুষের দিকে নজর দেওয়ার পরামর্শ দিয়ে বলেন, প্রধানমন্ত্রী বড় বড় কাজ করেই ফেলেছেন। এখন মানুষের দিকে নজর দিতে হবে। সবাই একত্রে মিলে সুন্দর বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখি।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles