11.7 C
Toronto
মঙ্গলবার, জুন ২৮, ২০২২

ছোট প্রতিপক্ষ পেলেই রোনালদোর গোল, এমন অপবাদে চটেছেন ওয়েঙ্গার

- Advertisement -
ছোট প্রতিপক্ষ পেলেই রোনালদোর গোল, এমন অপবাদে চটেছেন ওয়েঙ্গার
ছবি-সংগৃহীত

শুধু ছোট প্রতিপক্ষের বিপক্ষেই গোল করেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। নিন্দুকদের এমন বাঁকা মন্তব্য কতটুকু সঠিক? পরিসংখ্যান বলছে, ম্যাচের গুরুত্ব বিবেচনায় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসির চেয়ে বেশি কার্যকর তিনি।

আর আর্সেনালের সাবেক কোচ ও বর্তমানে ফিফার গ্লোবাল ফুটবল ডেভেলপমেন্টের প্রধান আর্সেন ওয়েঙ্গারের দাবি, দুই ফুটবলারের ক্ষেত্রে এমন দ্বিমুখী আচরণের জন্য দায়ী বিশ্ব মিডিয়া।

মেসি না রোনালদো? ফুটবলবিশ্বে এ বিতর্ক বহু পুরনো, সেকেলে। দুই কিংবদন্তির মাঝে পার্থক্য টানতে, এবার যোগ করা হয়েছে নতুন মাত্রা। পর্তুগিজ তারকার নামে অপবাদ, কেবল দুর্বল দলগুলোর বিপক্ষেই যেন তার বাজিমাত। তবে এমন বক্তব্যের সত্যতা কতটুকু?

দু’জন খেলেন ভিন্ন মহাদেশে। কৌশলেও বেশ পার্থক্য তাদের। প্রতিপক্ষ হিসেবে যেমন মুখোমুখি হতে হয় শক্তিশালী দলের, তেমনি খেলার সুযোগ পাওয়া যায়, র‌্যাঙ্কিংয়ে পিছিয়ে থাকা দলগুলোর বিপক্ষেও। তাই তো এমন তুলনায় বেশ চটেছেন আর্সেন ওয়েঙ্গার। সাবেক আর্সেনাল বসের দাবি, মিডিয়ার দ্বিমুখী আচরণেই এমন অপবাদ রোনালদোর নামের পাশে।

আর্সেন ওয়েঙ্গার বলেন, র‌্যাঙ্কিংয়ে পিছিয়ে থাকা দলগুলোর বিপক্ষে গোল করার পরে একদিকে রোনালদোর সমালোচনা অন্যদিকে, মেসির প্রশংসা করাটা চরম দ্বিমুখিতা। প্রথম দিন থেকেই এটা স্পষ্ট যে, মিডিয়া এ দুজনের ক্ষেত্রে বৈষম্যমূলক আচরণ করছে।

অবশ্য ওয়েঙ্গারের এমন দাবি বেশ যুক্তি বহন করে। আন্তর্জাতিক ফুটবলে সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা রোনালদো। এ তালিকায় রোনালদোকে পেছনে ফেলতে, দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে হবে সর্বোচ্চ ব্যালন ডি অর জেতা ফুটবলারকে।

ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর ফিফা বিশ্বকাপ। যেখানে মেসির ফাইনাল খেলার অভিজ্ঞতা থাকলেও, রোনালদোর সর্বোচ্চ অর্জন ২০০৬ বিশ্বকাপের চতুর্থ হওয়া। তবুও এ আসরে, গোল সংখ্যা ও ম্যাচপ্রতি গোলের হিসেব- দুটোতেই এগিয়ে পর্তুগিজ তারকা।

বিশ্বকাপ বাদে প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ম্যাচেও এগিয়ে রোনালদো। যেখানে মেসির ক্যারিয়ারের ৪৭ শতাংশ গোলই এসেছে ফ্রেন্ডলি ম্যাচে, সেখানে রোনালদো এগিয়ে ঢের এগিয়ে। ফ্রেন্ডলি ম্যাচ বাদেই এ তারকার গোলসংখ্যা ৯৭টি।

ক্লাব ও জাতীয় দলের হয়ে ফাইনাল খেলায় রোনালদোর চেয়ে এগিয়ে মেসি। তবে ফাইনাল জয়ের শতকরা হারে, আর্জেন্টাইন তারকাকে পেছনে ফেলেছেন সিআরসেভেন। ৩২ ফাইনাল খেলে প্রায় শতকরা ৭২ শতাংশ ম্যাচেই শিরোপা উঁচিয়ে ধরেছেন তিনি।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles