28.7 C
Toronto
শনিবার, জুন ২৫, ২০২২

বাথরুমে স্মার্টফোন সঙ্গে নেন দুই-তৃতীয়াংশ কানাডিয়ান

- Advertisement -
বাথরুমে স্মার্টফোন সঙ্গে নেন দুই-তৃতীয়াংশ কানাডিয়ান
ছবি/পেট্রিক তোমাসো

অর্ধেকের বেশি অর্থাৎ ৬৬ শতাংশ কানাডিয়ান টয়লেটে স্মার্টফোন নিয়ে যান বলে সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান নর্ডভিপিএনের এক সমীক্ষায় উঠে এসেছে। এ হার সমীক্ষার আওতায় থাকা ১০টি দেশের গড়ের তুলনায় কম।

সমীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের টয়লেটে স্মার্টফোনে একের অধিক কর্মকা- চিহ্নিত করতে বলা হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারের কথা জানান প্রায় ৬০ শতাংশ কানাডিয়ান। এছাড়া ৪০ শতাংশ ভিডিও গেম খেলেন এবং ৩৫ শতাংশ খবর পড়েন বা শোনেন বলে মত দেন। তবে হ্যাকারদের দ্বারা অনলাইন হুমকির চিন্তা কারও মাথাতেই নেই।

সমীক্ষায় অংশগ্রহণকারী ৩৩ শতাংশ একইসঙ্গে ভিডিও, মুভি অথবা টেলিভিশন অনুষ্ঠান দেখে থাকেন। ৩৩ শতাংশ স্ল্যাক বা মাইক্রোসফট টিমে ইমেইল পরীক্ষা করেন। আর ৩১ শতাংশ অন্যদের কল অথবা মেসেজ করেন।

নর্ডভিপিএনের ডিজিটাল প্রাইভেসি বিষয়ক বিশেষজ্ঞ ড্যানিয়েল মার্কুসন বলেন, ৮৩ শতাংশ কানাডিয়ান স্মার্টফোন তাদের অনলাইন আচরণ নিয়ন্ত্রণ করে বলে মত দিলেও অনলাইন জীবনের সুরক্ষায় কানাডা এখন পর্যন্ত উন্নত সাইবার আচরণ তৈরি করেনি।

মার্কুসন স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের অ্যাপ ও অপারেটিং সিস্টেম হালনাগাদ রাখার আহ্বান জানিয়েছেন। সেই সঙ্গ অপিরিচিত অ্যাপ ডাউনলোড থেকে বিরত থাকার পাশাপাশি অপরিচিত ওয়াইফাই ব্যবহার না করার পরামর্শ দিয়েছেন। অধিকাংশ কানাডিয়ান টয়লেটে তাদের বড় অংশ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কাটালেও ফেসবুক ও ইন্সটাগ্রাম তাদের ইউজার ডাটা সংগ্রহ করছে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, আইএসপি, তৃতীয় পক্ষের সংস্থা, ওয়েবসাইট ও সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো নিয়মিত ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য নিয়মিত সংগ্রহ করছে এবং তাদের ব্রাউজিং হ্যাবিটকে বিপণন ও অন্যান্য উদ্দেশে ব্যবহার করছে।
১৬ থেকে ১৯ জানুয়ারি পর্যন্ত পরিচালিত ওই সমীক্ষায় ফ্রান্স, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, জার্মানি, স্পেন, নেদারল্যান্ডস, পোল্যান্ড ও লিথুয়ানিয়ায়র ৯ হাজার ৮০০ জন অংশ নেন।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles