15.6 C
Toronto
শনিবার, মে ২৮, ২০২২

অন্টারিও নেতাদের ফ্রেঞ্চ ভাষায় দুর্বলতা

- Advertisement -
অন্টারিও নেতাদের ফ্রেঞ্চ ভাষায় দুর্বলতা - The Bengali Times
ফাইল ছবি

অন্টারিওর নেতাদের কেউই ফ্রেঞ্চ ভাষায় সেভাবে সাবলিল নন। সাবেক দুই লিবারেল প্রিমিয়ার ক্যাথলিন ওয়েন ও ডাল্টন ম্যাকগিনটি দুজনেই ফ্রেঞ্চ বলতে পারতেন এবং একজন অন্তত অন্টারিওর ফ্রেঞ্চ ভাষাভাষীদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারতেন। ২০২০ সাল থেকে দলীয় নেতার দায়িত্ব পালন করে আসা স্টিভেন ডেল ডুকা ২০১৩ সাল থেকেই অনিয়মিতভাবে ফ্রেঞ্চ ভাষা শিখছেন। কিন্তু সহসা তাকে বলতে শোনা যায় না।

লিবারেল পার্টির মুখপাত্র আন্দিয়া আনেস্যাক বলেন, ফ্রেঞ্চ যাদের মাতৃভাষা নয় তাদের সবার মতোই ভাষাটিতে সাবলীলতা অর্জন তার জন্যও দীর্ঘমেয়াদী চেষ্টা।
প্রোগ্রেসিভ কনজার্ভেটিভ নেতা ডগ ফোর্ড গত বছর বলেছিলেন, মহামারির সময় তিনি ফ্রেঞ্চ শেখা বন্ধ রেখেছিলেন। কিন্তু আবার তিনি শেখায় ফিরেছেন এবং তার ফ্র্যাঙ্কোফোন বিষয়ক মন্ত্রী ক্যারোলাইন মালরোনির কাছ থেকে সময় সময় ফ্রেজগুলো শিখে নিচ্ছেন।

- Advertisement -

এনডিপি নেতা আন্দ্র্রিয়া হরওয়াথও কিছু ফ্রেঞ্চ শিখেছিলেন। কিন্তু এখন বন্ধ রেখেছেন। গিন পাটি নেতা মাইক শ্রেইনার গত কয়েক বছর ধরে বাড়িতে শিক্ষক রেখে ফ্রেঞ্চ ভাষা শিখছেন।

স্ট্যাটিস্টিকস কানাডার তথ অনুযায়ী, অন্টারিওতে ফ্রেঞ্চ ভাষাভাষী মানুষ আছেন ৬ লাখের বেশি। তাদের ভাষায় কথা বলতে না পারলে ফ্রাঙ্কোফোন ভোটারদের সঙ্গে যোগাযোগ করা সতিই কঠিন বলে মনে করেন ইউনিভার্সিটি অব অটোয়ার রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধাপক জেনেভিয়েভ টেলিয়ের। তিনি বলেন, সবার জনই যেটা ভালো সবাদ তা হলো নেতাদের কেউই যেহেতু ফ্রেঞ্চ জানেন না তাই কারও বাড়তি সুবিধা বা অসুবিধার বাপারও নেই।

আই’আসেম্বলি ডে লা ফ্র্যাঙ্কোফোনি ডে আই’অন্টারিওর পেসিডেন্ট কারোল জোলিন বলেন, ভোটারদের ক্ষেতে এটা খুব বেশি বড় বিষয় হবে বলে তিনি মনে করেন না। তবে গুরুত্বপূর্ণ কিছু বিষয় তো আছেই। ফ্রেঞ্চ ভাষায় স্বাস্থ্যসেবা ও লং-টার্ম কেয়ার সেবা পাপ্তি এক্ষেত্রে অন্যতম। অনেক ফ্র্যাঙ্কোফোনকে পারিবারিক চিকিৎসক খুঁজে পেতে যুদ্ধ করতে হয়। স্বাস্থ্য সেবা পাপ্তির ক্ষেত্রেও বিরাট আঞ্চলিক বৈষম্য রয়েছে।

তিনি বলেন, অন্টারিওর লং-টার্ম কেয়ার হোমের জেষ্ঠ নাগরিকদের ৫ দশমিক ৫ শতাশ ফ্র্যাঙ্কোফোন। কিন্তু ফ্রেঞ্চ ল্যাংগুয়েজ সার্ভিসেস অ্যাক্টের অধীনে পরিচালিত হচ্ছে ২ শতাশেরও কম লং-টার্ম কেয়ার হোম।

যেসব অঞ্চলে উভয় ভাষাতেই সরকারকে সেবা পদান করতে হয় সেসব স্থানে ফ্র্যাঙ্কো ফোনদের জন লং-টার্ম কেয়ার সেবা সম্প্রসারণের ওআহ্বান জানিয়েছে জোলিনের সংস্থা। বতমানে ২৭টির মতো অঞ্চল আছে যেখানে ফ্র্যাঙ্কোফোন জনগোষ্ঠী বাস করেন। এর অর্থ হচ্ছে পতি পাঁচজনের মধে একজন অপ্রতুল সেবা পান।

 

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles