-5.2 C
Toronto
মঙ্গলবার, জানুয়ারী ৩১, ২০২৩

প্রেমিকের দরজায় ১১ দিন বসা তরুণীর ঠাঁই হলো কারাগারে

প্রেমিকের দরজায় ১১ দিন বসা তরুণীর ঠাঁই হলো কারাগারে
ছবি সংগৃহীত

বরগুনার বেতাগীতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নেওয়া সেই তরুণীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। প্রেমিক মাহমুদুলের বাড়িতে টানা ১১ দিন ধরে অবস্থান নিয়েছিলেন জামালপুরের ওই তরুণী। আজ শুক্রবার সকালে তাকে গ্রেপ্তারের পর আদালতে পাঠানো হয়।

বেতাগী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম হাওলাদার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘বিয়ের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া মাহমুদুল হাসানের ভাড়া বাসায় অবস্থান নেওয়া তরুণীকে শুক্রবার সকালে গ্রেপ্তারের পর আদালতে পাঠানো হয়েছে।

- Advertisement -

গত ২৮ এপ্রিল নিজেকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী দাবি করা এই তরুণী বেতাগী উপজেলার চান্দখালী বাজারের কাঠপট্টি এলাকার বকুল ভিলায় বিয়ের দাবিতে অবস্থান নেন। তখন তিনি দাবি করেন, ওই বাড়ির মাহমুদুল হাসানের সঙ্গে তার ঢাকায় পরিচয়। পরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক হলে তারা স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে তিন বছর ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন। এখন মাহমুদুল তাকে বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় তিনি ওই বাড়িতে অবস্থান নিয়েছেন।

জানা গেছে, ওই মেয়ের বাড়িতে আসার খবর পেয়েই পালিয়ে যান মাহমুদুল ও তার পরিবার। পরে তরুণী এসে দরজার সামনেই অবস্থান করেন এবং ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তার প্রেমিক (মাহমুদুল হাসান) বিয়ে না করলে আত্মহত্যার হুমকি দেন। দুই দিন পার হয়ে যাওয়ার পর স্থানীয়দের সহায়তায় ঘরের তালা ভেঙে ভেতরে অবস্থান করেন ওই তরুণীর। পরে মাহমুদুলের মামা ঘটনাস্থলে আসলে তাকে আটকে রাখা হয়।

এক পর্যায়ে জানা যায়, তার বাড়ি জামালপুরে। তিনি ঢাকা অবস্থান করে গার্মেন্টে চাকরি করেছেন। বিয়েও হয়েছিলে একজনের সাথে। সেখানে একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে।

জানা যায়, ওই তরুণী এভাবে অনেকের সঙ্গে বিভিন্ন পরিচয়ে সম্পর্ক গড়ে তুলে ফাঁদ পাতেন। এভাবে তিনি আরো একাধিক ছেলের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। তারই ধারাবাহিকতায় মাহমুদুল হাসানের সঙ্গে মিথ্যা পরিচয়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন এই নারী। বিভিন্নভাবে ছবি তুলে তাকে ফাঁসানোর চেষ্টাও করেন।

বিষয়টি নজরে আসে বরগুনা জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্য সাইমুল ইসলাম রাব্বির। তিনি বলেন, আমি বিষয়টি আদালতের নজরে এনে আবেদন করেছিলাম। বরগুনা চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বিষয়টি আমলে নিয়ে বেতাগী থানার ওসি মো. শাহ আলম হাওলাদারকে আইনি পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দিয়েছেন। এরপর গতকাল বৃহস্পতিবার তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে ভুক্তভোগী পরিবার। বিষয়টি আমলে নিয়ে এজাহারের আদেশ দিয়ে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আইনি ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন আদালত।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles